osama bin laden

ওয়েবডেস্ক: পাকিস্তানের অ্যাবোটাবাদে থাকাকালীন শিশুদেন সিনেমা, জ্যাকি চ্যানের শো এবং কমেডি সিনেমা দেখে সময় কাটাতেন ওসামা বিন লাদেন। এমনই জানা গেল যুক্তরাষ্ট্রের তদন্তকারী সংস্থা সেন্ট্রাল ইন্টেলিজেন্স এজেন্সির (সিআইএ) তরফ থেকে।

লাদেনের বাসস্থান থেকে বাজেয়াপ্ত করা চার লক্ষ ৭০ হাজার ফাইল বুধবার প্রকাশ করে সিআইএ। তাঁর জীবনের ওপরে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য এবং কী ভাবে তাঁর জঙ্গি সংগঠন আল-কায়দা চালিত হত, সে ব্যাপারে অনেক কিছুই এই ফাইলে রয়েছে, এমনই দাবি সিআইএ-এর। কিন্তু এমন অনেক কিছু জিনিসও উদ্ধার করা হয়েছে, যা থেকে বোঝা যায়, ব্যক্তিগত জীবনে হাসি এবং কৌতুক সিনেমা দেখাও পছন্দ করতেন লাদেন।

ওই ফাইল থেকে উদ্ধার হয়েছে, দুই ছোট্টো ভাইয়ের গল্প নিয়ে তৈরি শিশুদের সিনেমা, ‘চার্লি বিট মাই ফিঙ্গার’-এর সিডি। এর পাশাপাশি ১৯৯০ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত কমেডি সিনেমা ‘আন্টৎস’-এর সিডি পাওয়া গিয়েছে। এ ছাড়াও রয়েছে কমেডি সিনেমা ‘চিকেন লিটল’ এবং ‘দ্য থ্রি মাসকেটিয়ার্স’-এর সিডি।

তবে তদন্তকারীদের মতে, এই সিনেমাগুলি ওসামা নয়, তাঁর পরিবারের বাকি সদস্যরাও দেখতে পারে। কারণ মৃত্যুর আগে অ্যাবোটাবাদের বাড়িতে নিজের পরিবারের সঙ্গে থাকতেন লাদেন।

‘ফাউন্ডেশন ফর ডিফেন্স অফ ডেমক্র্যাসি’-এর সিনিয়র ফেলো, বিল রজিও এই ফাইলগুলি দেখেছেন। মজার ছলে তিনি বলেন, “ব্যাপারটা অনেকটা এ রকম যে, ‘ওসামা-বিন-লাদেন টম অ্যান্ড জেরির ভক্ত’। হতেও পারে। এটা অসম্ভব ব্যাপার কিছু নয়।” তিনি আরও বলেন, “কিন্তু আমার মনে হচ্ছে এগুলো ওসামা নয়, তাঁর পরিবারের বাকি সদস্যরা দেখতেন।”

শিশু এবং কমেডি সিনেমার সিডি-র পাশাপাশি ‘হর্স কলেকশন’-সহ জ্যাকি চ্যানের অসংখ্য শো-এর সিডি রয়েছে। সিআইএ-র মতে নিজের সন্তানদের সম্ভবত গান এবং ইংরেজি সেখাতেন লাদেন, তাই এ রকম আরও অনেক সিডিই পাওয়া গিয়েছে এই সব ফাইল থেকে।

অনেক ভিডিওর মধ্যে একটায় লাদেনের ছেলে হমজা-বিন-লাদেনকেও দেখা যাচ্ছে। আল কায়দায় ওসামার উত্তরসূরি হিসেবেই ধরা হচ্ছে হমজাকে। এত দিন পর্যন্ত শিশু হমজার ছবিই দেখেছেন সাধারণ মানুষ। এই প্রথম সাবালক হমজাকে দেখা যাচ্ছে।

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here