দায় এড়াতে পুলওয়ামা হামলার নেপথ্যে ভিন্ন কারণ তুলে ধরল পাকিস্তান

হামলায় শহিদ ৪০ জওয়ানের শোকে ফুঁসছে গোটা ভারত। এমন সময়েই পাকিস্তান পুরো ঘটনার মোড় অন্য দিকে ঘুরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে।

0
Pakistan’s foreign minister Shah Mehmood Qureshi

ওয়েবডেস্ক: গত বৃহস্পতিবার থেকেই জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলা নিয়ে ফের উত্তপ্ত হয়ে প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তানের সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক।

হামলার পরেই দায় স্বীকার করে নিয়েছে পাকিস্তানের জঙ্গিগোষ্ঠী জইশ-ই-মহম্মদ। তার পরেও সে দেশের বিদেশমন্ত্রকের তরফে ব্যাখ্যা করা হচ্ছে ভিন্ন কারণ।

হামলায় শহিদ ৪০ জওয়ানের শোকে ফুঁসছে গোটা ভারত। এমন সময়েই পাকিস্তান পুরো ঘটনার মোড় অন্য দিকে ঘুরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে।

পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী শাহ মেহবুব কুরেশি মুনিচ সিকিউরিটি কনফারেন্সে যোগ দিয়ে তেমন বক্তব্যই পেশ করেছেন সংবাদ মাধ্যমের কাছে।

তিনি বলেন, “শান্তি ও স্থিতি বজায় রাখতে এ ব্যাপারে নয়াদিল্লির ব্যাখ্যার প্রয়োজন রয়েছে। না কি আসন্ন ভোটের দিকে তাকিয়ে এ সব হচ্ছে”।

তিনি বলেন, “কোনো ঘটনার দায় খুব সহজেই পাকিস্তানের উপর চাপিয়ে দেওয়া যায়। কিন্তু আমাদের দৃষ্টিভঙ্গি খুবই স্বচ্ছ। আমরা শান্তি চাই”।

কুরেশি একই সঙ্গে বলেছেন, “কোনো রকমের তদন্ত না করেই ঘটনার দায় পাকিস্তানের উপর চাপিয়ে দেওয়ায় আমরা দু‌ঃখিত”।

পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরিও বলেছেন, “ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী পুলওয়ামা হামলার প্রাথমিক সুবিধাভোগী”।

তিনি বলেন, “সীমান্ত থেকে ১৩০ কিমি ভিতরে হামলা হয়েছে। ৩৫০ কেজি বিস্ফোরক ভরতি গাড়িটি মোটেই পাকিস্তান থেকে ভারতে যায়নি”।

[ আরও পড়ুন: পুলওয়ামা হামলার পর পাকিস্তানের সমস্ত পণ্যে শুল্ক বেড়ে গেল ২০০ শতাংশ ]

আরও নির্দিষ্ট করে ফাওয়াদ বলেছেন, “হারের মুখে দাঁড়িয়ে আছেন মোদী। ফলে পুলওয়ামা হামলা থেকেই তিনি সুবিধা তুলতে চাইছেন”।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.