Hafiz Muhammad Saeed
ফাইল ছবি

ইসলামাবাদ: প্রবল আন্তর্জাতিক চাপের মধ্যে শেষ পর্যন্ত কুখ্যাত জঙ্গি তথা জামাত-উদ-দাওয়া প্রধান হাফিজ সঈদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিল পাকিস্তান। সমাজসেবার নাম করে টাকা তুলে তা জঙ্গি কার্যকলাপে কাজে লাগানোর অভিযোগে হাফিজের বিরুদ্ধে মামলা করল পাকিস্তানের কাউন্টার টেরোরিজম ডিপার্টমেন্ট বা সিটিডি।

সিটিডির অভিযোগ, জামাত উদ দাওয়া ও হাফিজের ১২ সহযোগী টাকা তুলে তা সন্ত্রাসের কাজে খরচ করছেন। হাফিজ-সহ ওই ১২ জনের বিরুদ্ধে মোট ২৩টি মামলা করা হয়েছে। সইদ ছাড়াও ওই তালিকায় রয়েছে সইদের শ্যালক আব্দুল রহমান মক্কি, আমির হামজা ও মুহাম্মাদ ইয়াহিয়া। লাহোর, মুলতান ও গুজরানওয়ালায় এই মামলাগুলি রজু করা হয়েছে।

আরও পড়ুন বাড়িটির শেষ রক্ষা হল না! কৈলাস-পুত্রের ‘ব্যাটিং’ থেকে মুখে ফেরাল হাইকোর্টও

সিটিডির দাবি, আল-আনফাল, দাওয়াত-উল-ইরশাদ এবং মুয়াজ-বিন-জাবাল সংস্থার নামে টাকা তোলা হয়েছে। এই সব সংগঠন ছাড়াও জামাত উদ দাওয়া, লস্কর-ই-তৈবা ও ফিফ-এর বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হয়েছে।

উল্লেখ্য, হাফিজ সঈদকে আন্তর্জাতিক জঙ্গি ঘোষণা করেছে রাষ্ট্রপুঞ্জ। তার পর থেকেই চাপ বাড়ছিল ইমরান খান সরকারের ওপরে। এর ওপর ঝুলছিল কালো তালিকাভুক্ত হওয়ার খাঁড়া। এমনটা হলে পাকিস্তানে আর্থিক সাহায্য বন্ধ করে দিল আইএমএফ। আর্থিক অনুদান বন্ধ করে দিলে চরম আতান্তরে পড়ত পাকিস্তান। এক প্রকার সেই চাপেই হাফিজের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হল ইমরান খান সরকার।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here