pakistan terrorist organisations

ইসলামাবাদ: মুখে না বললেও, ভারত এবং আন্তর্জাতিক চাপের কাছে পাকিস্তান অনেকটাই নতিস্বীকার করেছে, সেটা তাদের কাজকর্ম থেকেই বোঝা যাচ্ছে। আর সেই কারণেই জঙ্গিদের বিরুদ্ধে অভিযানে আরও গতি আনতে বাধ্য হয়েছে তারা।

গত কয়েক দিন ধরেই জঙ্গিনেতাদের আটক করা হচ্ছিল পাকিস্তানে। বৃহস্পতিবার, সে দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক থেকে জানানো হয়েছে এখনও পর্যন্ত মোট ১৮২টি মাদ্রাসার দখল নিয়েছে পাক সরকার। সেই সঙ্গে ১২১ জন কট্টরপন্থী নেতাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তবে ভারতের চাপের কাছে নতিস্বীকার, এই দাবি নস্যাৎ করেছে পাকিস্তান। তাদের বক্তব্য, অনেক দিন ধরেই, এই সংগঠন এবং নেতারা তাদের কালো তালিকায় ছিল।

আরও পড়ুন কাশ্মীরি হওয়ার ‘দোষে’ দুই ফল বিক্রেতাকে বেধড়ক মার যোগীর রাজ্যে, বাঁচালেন স্থানীয়রাই

এই মাদ্রাসাগুলোতে ধর্মীয় শিক্ষা দিয়ে কট্টরপন্থায় উৎসাহ দেওয়া হতো বলে জানিয়েছে পাক প্রশাসন। জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদ ছাড়াও জামাত-উদ-দাওয়ার মতো কট্টরপন্থী সংগঠন দেশের বিভিন্ন প্রান্তে মাদ্রাসাগুলি চালায়। তবে এখনও পর্যন্ত ১৮২টা মাদ্রাসার দখল নেওয়া হলেও, এখনও অনেক মাদ্রাসার দখল নেওয়ার বাকি রয়েছে বলে জানিয়েছে পাকিস্তান।

শুধু মাদ্রাসা বা জঙ্গি নেতাই নয়, কট্টরপন্থীদের হাতে থাকা ৩৪টা স্কুল-কলেজ, ১৬৩টা ডাক্তার খানা, ১৮৪টা অ্যাম্বুলেন্স, ৫টা হাসপাতাল এবং আটটা অফিসেরও দখল নেওয়া হয়েছে।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন