kruger national park

ওয়েবডেস্ক: শেষে কি না শিকারি নিজেই শিকার হয় গেল। সিংহকে মারতে এসে সিংহের পেটেই চলে গেল এক চোরাশিকারি। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রুগার জাতীয় উদ্যানে।

ক্রুগার জাতীয় উদ্যানের উপকণ্ঠে একটি পার্কের মধ্যে ওই চোরাশিকারির দেহ উদ্ধার হয়েছে। তবে দেহটি যখন উদ্ধার করা হয়, তখন তার অংশবিশেষ বলতে কিছুই ছিল না। সবই ততক্ষণে সিংহদের পেটে চলে গিয়েছে। কিন্তু কী ভাবে বোঝা গেল যে সিংহের  দল যাকে খেয়েছে সে এক চোরাশিকারি?

এই প্রসঙ্গে পুলিশের এক আধিকারিক বলেন, “সব তথ্যপ্রমাণ দেখে মনে হচ্ছে ওই লোকটা চোরাশিকারি ছিল। শুধুমাত্র মৃতের মাথা আর দেহের অল্প একটু অংশ ছাড়া কিছুই উদ্ধার হয়নি। তবে দেহের কাছে একটা শিকারি বন্দুক উদ্ধার হয়েছে।” শিকারি বন্দুকের জন্যই মৃত ব্যক্তিকে চোরাশিকারি বলেই সন্দেহ হয়েছে পুলিশের।

গত এক বছর ধরেই এই অঞ্চলে চোরাশিকারির সমস্যা ক্রমে বাড়ছিল। সিংহদের শরীরে কোনো ভাবে বিষ প্রয়োগ করে তাদের মেরে ফেলা হচ্ছিল। সিংহের পাশাপাশি চোরাশিকারিদের লক্ষ্য ছিল গণ্ডাররাও। গণ্ডারের খড়গ মূলত চিন, ভিয়েতনামে বিক্রি করা হয়।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন