কয়েকদিন আগেই বারাক ওবামাকে গালাগালি করে আন্তর্জাতিক শিরোনাম হয়েছিলেন ফিলিপিনসের রাষ্ট্রপতি রড্রিগো দুতের্তে। এবার আমার বিস্ফোরক মন্তব্য। দুতের্তে পরিষ্কার জানিয়েছেন, আগামী সপ্তাহে আমেরিকা ও ফিলিপিনসের মধ্যে যে যৌথ সামরিক মহড়া হওয়ার কথা রয়েছে, সেটাই দু’দেশের শেষ যৌথ মহড়া হতে চলেছে। দুতের্তে বলেছেন, এটাও তিনি বন্ধ করে দিতেন, কিন্তু সেক্ষেত্রে দেশের প্রতিরক্ষা সচিব সমস্যায় পড়বেন বলে, তা তিনি করেননি। যদিও ফিলিপিনসের রাষ্ট্রপতি জানিয়ে দিয়েছেন, ১৯৫১ সালে থেকে সেদেশের সঙ্গে আমেরিকার যে প্রতিরক্ষা চুক্তি রয়েছে, সেটার প্রতি সম্মান তিনি বজায় রাখবেন। এশিয়ার অন্যতম পুরোনো জোটটিকে তিনি একেবারে নষ্ট করে দিতে চান না।

কিন্তু কেন এমন সিদ্ধান্ত ফিলিপিনসের রাষ্ট্রপতির। দুতের্তে বলেছেন, তিনি রাশিয়া ও চিনের সঙ্গে আরও ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক তৈরি করতে চান। আর এই সামরিক মহড়ায় চিনের আপত্তি আছে। আমেরিকা অবশ্য জানিয়েছে, তারা এই মর্মে কোনও সরকারি বিবৃতি পায়নি। তবে তারা জানিয়েছে, ‘বর্তমানের সম্পর্ক এবং সেটাকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়াই আমাদের মূল লক্ষ্য’।

ফিলিপিনসের বিদেশ সচিব অবশ্য বলেছেন, দুতের্তের মন্তব্যকে ভুল বোঝা হয়েছে। তিনি আসলে বলতে চেয়েছেন, ফিলিপিনস তাদের জলসীমার বাইরে কোনও সামরিক মহড়া করবে না।

গত মে মাসে দুতের্তে ক্ষমতায় আসার পর থেকেই দুই দেশের সম্পর্কে উত্তজনা তৈরি হয়। এ মাসের শুরুতে দুতের্তে মার্কিন প্রেসিডেন্টকে সতর্ক করেন, যাতে ওবামা তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা ড্রাগ ব্যবসায়ীদের ‘অসাংবিধানিক হত্যা’র অভিযোগ নিয়ে কোনও প্রশ্ন না করেন। আর সে কথা বলতে গিয়ে তিনি মার্কিন প্রেসিডেন্টকে ‘গণিকার সন্তান’ বলে মন্তব্য করেন। তিনি ‘আমেরিকার হাতের পুতুল নন’, সেকথাও জানিয়ে দেন দুতের্তে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here