মস্কো: সোচি উপকূলের কাছে ভেঙে পড়ল রুশ সামরিক বিমান টিইউ-১৫৪। বিমানটিতে ৮৪ জন যাত্রী এবং ৮ জন বিমানকর্মী ছিলেন। কোনো যাত্রীর বেঁচে থাকার সম্ভাবনা নেই। সোচি উপকূল থেকে দেড় কিলোমিটার দূরে কৃষ্ণ সাগরে ৫০-৭০ মিটার গভীরে বিমানের অংশ খুঁজে পেয়েছে উদ্ধারকারী দল। সিরিয়ার লাতাকিয়ায় রুশ বিমানঘাঁটির উদ্দেশে যাচ্ছিল উড়ানটি।

যাত্রা শুরুর একটু পরই রাডার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় বিমানটি। বিমানে সেনাবাহিনীর সদস্যরা ছাড়াও ছিল সামরিক বাহিনীর একটি গানের দল এবং সাংবাদিকরা। লাতাকিয়ার বিমানঘাঁটিতে গানের অনুষ্ঠান করার কথা ছিল ওই গানের ব্যান্ডটির।

উদ্ধারকাজ চলছে ব্যাপক ভাবে। ৩২টি জাহাজ, বেশ কিছু হেলিকপ্টার এই কাজে নামানো হয়েছে। বিমানের ধ্বংসাবশেষ এবং আরোহীদের দেহ খুঁজে বের করার জন্য রাশিয়ার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ১০০ ডুবুরি-সহ ৩০০০ কর্মীকে উড়িয়ে আনা হয়েছে। সঙ্গে রয়েছে দ্রোন, সাবমেরিন। যেখানে বিমানটি ভেঙে পড়ে সেখানে জোরালো সার্চলাইট ফেলে অনুসন্ধান চালাও হচ্ছে। উপকূল থেকে দেড় কিমি দূরে জাহাজের কিছু টুকরো পাওয়া গেছে এবং ভারতীয় সময় রবিবার রাত ১টা পর্যন্ত ১১টি দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। রাশিয়ার পরিবহণমন্ত্রী মাক্সিম সকোলভ জানিয়েছেন, কিছু দেহাংশও পাওয়া গিয়েছে।

কী ভাবে এই দুর্ঘটনা ঘটল তার সম্ভাব্য সব রকম খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এবং  জঙ্গি হানার আশঙ্কাও উড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে না বলে পরিবহণমন্ত্রী জানান। সোমবার রাশিয়ায় জাতীয় শোকদিবস করা হবে বলে প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন জানিয়েছেন।   

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here