ওয়াশিংটন: ক্ষমতায় এসেই সাতটি মুসলিম প্রধান দেশের আমেরিকায় প্রবেশে  ৯০দিনের জন্য নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। সেই নিষেধাজ্ঞায় স্থগিতাদেশ জারি করলেন সিয়াটলের ফেডারেল আদালতের এক বিচারপতি।

শুধু স্থগিতাদেশ দিয়েই থামেননি বিচারপতি জেমস রবার্ট। এই মুহূর্ত থেকেই যাতে স্থগিতাদেশ কার্যকর হয়, তার জন্য সরকারকে পদক্ষেপ করতে বলেছেন তিনি। সমস্ত উড়ান সংস্থাকে বিষয়টি শিগগির জানিয়ে দেওয়ারও নির্দেশ দিয়েছেন।

কড়া প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে হোয়াইট হাউজ। এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “স্বদেশকে রক্ষা করার জন্যই এই নির্দেশ দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট। মার্কিন জনগণকে রক্ষা করার সাংবিধানিক ক্ষমতা ও দায়িত্ব রয়েছে তাঁর”।

এই ‘ভয়ঙ্কর’ রায়কে স্থগিত করার জন্য আইন দফতর দ্রুত পদক্ষেপ করবে বলে জানানো হয় হোয়াইট হাউজের তরফে। কয়েক মিনিটের মধ্যেই অবশ্য  ‘ভয়ঙ্কর’ শব্দটি বাদ দিয়ে নতুন বিবৃতি প্রকাশ করা হয়।

ট্রাম্পের ওই নির্দেশে এর আগেও স্থগিতাদেশ দিয়েছিল একটি মার্কিন আদালত। তবে এদিনের নির্দেশের পরিসর অনেক বড়ো এবং গুরুত্বও বেশি। 

সিয়াটল আদালতের স্থগিতাদেশ, ট্রাম্প প্রশাসন ও বিচার ব্যবস্থার মধ্যে এক দীর্ঘমেয়াদি লড়াইয়ের সূচনা বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল। 

 

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here