কাবুল বিমানবন্দরের কাছে জোড়া বিস্ফোরণ, নিহত অন্তত ৪০, আইসিস-কে সন্দেহ

0
কাবুল বিমানবন্দরের বাইরে বিস্ফোরণ। ছবি: টুইটার থেকে

কাবুল: বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কাবুল বিমানবন্দরের বাইরে জোড়া বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল এলাকা। এ দিনের বিস্ফোরণে হতাহতের সংখ্যাও অনেক। সংবাদ মাধ্যমের খবর, অন্তত পক্ষে ৪০ জনের মৃত্যু হয়েছে। পেন্টাগন জানিয়েছে, নিহতদের মধ্যে সাধারণ নাগরিক ছাড়াও মার্কিন সেনাবাহিনীর বহু সদস্য রয়েছেন। এই বিস্ফোরণে আইসিস-এর (ISIS) হাত আছে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে।

বিমানবন্দরের গেটের অদূরে প্রথম বারের বিস্ফোরণে শিশু-সহ কমপক্ষে ১৩ জনের মৃত্যু হয় বলে দাবি করেছে তালিবান। এর কিছুক্ষণের মধ্যেই ফের একটি বিস্ফোরণ ঘটে। আফগানিস্তান থেকে পালিয়ে বাঁচায় আশায় বিমানবন্দরের বাইরে অপেক্ষারত অনেকে আহত ও নিহত হয়।

বিমানবন্দরের অ্যাবি গেটের বাইরে আত্মঘাতী বোমা হামলায় কমপক্ষে তিন জন মার্কিন সেনা আহত হয়েছেন বলে জানান ফক্স নিউজের এক সাংবাদিক।

এ দিকে বিস্ফোরণের পর তালিবানের মুখপাত্র জবিহুল্লাহ মুজাহিদ দাবি করেন, বৃহস্পতিবার কাবুল বিমানবন্দরের বাইরে বিস্ফোরণগুলো ছিল ‘জঙ্গি হামলা’।

তিনি বলেন, “কাবুল বিমানবন্দরে সম্ভাব্য আইএসআইএল হামলার তথ্য জানিয়েছিল আমেরিকা। আমরা আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ এবং আফগানিস্তানকে জঙ্গিদের ঘাঁটি হিসেবে ব্যবহার করতে দেবে না তালিবান”।

বিস্ফোরণের পর আহতদের হাসপাতালের উদ্দেশে নিয়ে যেতে দেখা যায় ভিডিয়োয়।

ব্রিটেনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রক জানায়, বিস্ফোরণের খবরের পর কাবুল বিমানবন্দরে কী ঘটেছিল, তা তাৎক্ষণিক ভাবে খতিয়ে দেখার কাজ চলছে।

মার্কিন প্রতিরক্ষা বিভাগের সদর দফতর পেন্টাগনের মুখপাত্র জানিয়েছেন, “আমরা কাবুল বিমানবন্দরের বাইরে একটি বিস্ফোরণের ঘটনা নিশ্চিত করছি। এই মুহূর্তে হতাহতের বিষয়টি অস্পষ্ট। হাতে আসার সঙ্গে সঙ্গেই বিস্তারিত বিবরণ জানাব”।

কাবুলের হামিদ কারজাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের বাইরে এই বিস্ফোরণের পর মার্কিন দূতাবাস মার্কিন নাগরিকদের “বিমানবন্দরে থেকে দূরে থাকার” সতর্কতা জারি করেছে।

বিস্তারিত পড়তে পারেন এখানে: কাবুল বিমানবন্দরের বাইরে আত্মঘাতী বিস্ফোরণ, নিশ্চিত করল পেন্টাগন

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন