ওয়েবডেস্ক: নাবালিকার সঙ্গে যৌন সম্পর্ক চলতেই পারে কিন্তু তাঁকে যৌন উদ্দীপক বার্তা পাঠানো চলবে না।

শুনে অবাক লাগছে? লাগলেও কিছু করার নেই, কারণ এমনই রায় দিয়েছে আদালত। শুধু রায় নয়, ষোল বছরের ছাত্রীকে মোবাইলে নগ্ন ছবি পাঠানোর জন্য শিক্ষক সমীর ঠকরকে ৩ বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত। ঘটনাটি ঘটেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইন্ডিয়ানা প্রদেশে।

ইন্ডিয়ানায় ১৬ বছরের কিশোর-কিশোরীর সঙ্গে সম্মতিক্রমে যৌন সম্পর্ক আইনসিদ্ধ। সেখানেই হাইস্কুলের শিক্ষক সমীর ঠকর ২০১৪ সালে এক ছাত্রীকে মোবাইলে মেসেজ পাঠাতে শুরু করেন। সে সময় মেয়েটি ছিল নাবালিকা। বয়স ১৬। সমীর তাঁকে নিজের উত্থিত লিঙ্গের ছবিও পাঠান। নাবালিকাকে এই ধরনের বার্তা পাঠানো বেআইনি, এই অভিযোগে মামলা দায়ের করে মেয়েটি। ইন্ডিয়ানার নিম্ন আদালত জানিয়ে দেয়, এই মামলার কোনো অর্থ নেই। কারণ, যে বয়সে যৌন সম্পর্ক করা আইনসিদ্ধ, সেই বয়সের কাউকে মোবাইলে যৌন উদ্দীপক ছবি পাঠানো বেআইনি হতে পারে না। যদিও সে রাজ্যের আইনে এই কাজ অপরাধ। কিন্তু আদালত বলে, আইনটি ‘অযৌক্তিক’।

নিম্ন আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে ইন্ডিয়ানার সুপ্রিম কোর্টে যায় মেয়েটি। সুপ্রিম কোর্ট বিষয়টিকে অপরাধ বলে চিহ্নিত করে। এবং জানায়, আইনে যদি কোনো অযৌক্তিকতা থাকে, তবে তা ঠিক করার দায়িত্ব আইন প্রণেতাদের। বর্তমানে যে আইন রয়েছে, সেই অনুযায়ী অভিযুক্ত অবশ্যই অপরাধী।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here