আমেরিকার মলে গুলিতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে পাঁচ। নিহতের মধ্যে ৪ জন মহিলা, ১ জন পুরুষ। জখম হয়েছেন বেশ কিছু মানুষ। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টা নাগাদ, সিয়াটল্‌ থেকে ১১০ কিলোমিটার উত্তরে বার্লিংটনে। ঘটনার পর থেকেই ঘাতক ব্যক্তিকে হন্যে হয়ে খোঁজা শুরু করেছে মার্কিন প্রশাসন।

শুক্রবার সন্ধ্যায় ওয়াশিংটনের বার্লিংটনে ক্যাসকেড মলে এক ব্যক্তি হঠাৎ গুলি চালাতে শুরু করে। সবাই যে যার মতো প্রাণ বাঁচাতে শুরু করে। দোকান কর্মচারীরা দোকানের শাটার ফেলে দেন। কিছু ক্রেতা দোকানের মধ্যে আশ্রয় নেন। বাকিরা এ-দিক ও-দিক দৌড়তে শুরু করেন। কাজ সাঙ্গ করে রাইফেলধারী ঘাতক হেঁটে হেঁটে চলে যায়। ওয়াশিংটন স্টেট প্যাট্রল ডিসট্রিক্ট সেভেন-এর মুখপাত্র মার্ক ফ্রান্সিস বলেন, সন্দেহভাজন ব্যক্তিটি ‘হিস্প্যানিক পুরুষ, ধূসর পোশাক পরে ছিল’। ঘটনার পর গোটা জায়গাটা জোরদার নিরাপত্তা ব্যবস্থায় মুড়ে ফেলা হয়। চলে আসেন এমার্জেন্সি মেডিক্যাল সার্ভিস-এর (ইএমএস) কর্মীরা। তাঁরা মলে ধুকে হতাহতদের হাসপাতালে পাঠান। 

ঘাতক ব্যক্তিটি এখনও অধরা। তার খোঁজে নামানো হয়েছে সন্ধানকারী দল, কে ৯ ইউনিট, এমনকি হেলিকপ্টারও।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here