exercise
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: শরীর স্বাস্থ্যের জন্য যোগ ব্যায়াম ভালো, এই বিষয় নিয়ে এর আগে অনেকেই অনেক কথা বলেছেন। কিন্তু সামান্য যোগ ব্যায়াম উন্নতি করতে পারে পড়াশোনা এবং কাজেরও। এমন কথা জানা গেল অনলাইন পত্রিকা ‘ইলাইফ’ থেকে। আসলে এই অনলাইন পত্রিকাটিতে একটি গবেষণাপত্র প্রকাশ করা হয়েছে। এই গবেষণাটি করেছেন, পোর্টল্যান্ডের ওএইচএসইউ-র স্নায়ুবিজ্ঞানীরা। গবেষণাটি করার জন্য তাঁরা ব্যবহার করেছেন ইঁদুর।

গবেষক গ্রে ওয়েস্টব্রুক বলছেন, কিলোমিটারের পর কিলোমিটার দৌড়ানো নয়, জিমে গিয়ে ব্যয়বহুল ওয়ার্কআউটও নয়। সামান্য পরিমাণ ব্যায়ামই উন্নতি করতে পারে কাজ এবং পড়াশোনার। কারণ সামান্য ব্যায়ামে যে পরিশ্রম হয় তা সরাসরি নিউরোন বা স্নায়ুতে গিয়ে প্রভাব ফেলে। তা প্রবাহিত হয়ে পৌঁছে যায় মস্তিষ্কে। সেখানেই যে সব স্নায়ুগুলি এই সব কাজের সঙ্গে জড়িত, তাদের উত্তেজিত করে। ফলে কাজ পড়াশোনা ইত্যাদি ভালো হয়।

আরও পড়ুন – হোয়াটসঅ্যাপ স্বাস্থ্যের জন্য ভালো, বলছে গবেষণা

গ্রে বলেন, স্নায়ু বিশেষজ্ঞ মানে এই নয় যে তাঁরা হৃদয় বা পেশির সুস্বাস্থ্যের দিকে নজর দেবেন না, বা এই বিষয়ে তাঁদের কিছু যায় আসে না। তবে তাঁরা জানতে চান ব্যায়াম মস্তিষ্কের ওপর কী প্রভাব ফেলে।

এই বিষয়টি জানার জন্যই তাঁরা ইঁদুর নিয়ে গবেষণা করেন। তাদের মস্তিষ্কের কার্যকারিতার পরিবর্তন পর্যবেক্ষণ করেছেন। একটিকে সামান্য পরিশ্রম করিয়েছেন, অন্যটিকে চাকার ওপর চড়িয়ে কিলোমিটারের পর কিলোমিটার দৌড় করার সমান খাটিয়েছেন। এর পর তাঁরা লক্ষ্য করেছেন এদের মস্তিষ্কের কাজের পরিবর্তন।

দেখেছেন, সামান্য পরিশ্রমই মানুষের মস্তিষ্কের সাপ্তাহিক মেয়াদে পিকআপ বাস্কেট বল খেলার সমান প্রভাব ফেলছে। জিন বিশ্লেষণ করে তাঁরা দেখেছেন, নিউরোনের কার্যকারিতা বৃদ্ধি পেয়েছে। এর থেকেই তাঁরা এই সিদ্ধান্তে এসেছেন যে, সামান্যতম ব্যায়ামের ফলে মস্তিষ্কের যে কার্যকারিতা বৃদ্ধি পায় তা পড়াশোনা বা কাজের ক্ষেত্রে খুবই ফলদায়ী।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here