লহোরের সুফি দরগায় বিস্ফোরণ, হত ৪, আহত অন্তত ১৫

0
lahore attack
বিস্ফোরণের পর ঘটনাস্থলে।

লহোর: বছর খানেক শান্ত থাকার পর ফের জঙ্গি নিশানায় পাকিস্তানের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর। বুধবার সকালে শহরের দাতা দরবার দরগায় বিস্ফোরণে মৃত্যু হয়েছে কমপক্ষে চার জনের। আহত আরও ১৫ জন। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম প্রাচীন এই দরগা। ১১ শতকে তৈরি হয়েছিল এটি। এই দরগায় ঢোকার জন্য মহিলাদের যে লাইন ছিল, তারই সামনে বিস্ফোরণ হয়। কী ধরনের হামলা সে ব্যাপারে পুলিশ নিশ্চিত করে কিছু না জানালেও আত্মঘাতী হামলার তত্ত্ব ক্রমশ জোরালো হচ্ছে।

আরও পড়ুন এভারেস্টের আবহাওয়ায় কী ভাবে প্রভাব ফেলল ফণী?

রমজান মাসের শুরুতেই জঙ্গিদের এ হেন কার্যকলাপে ফের ত্রস্ত পাকিস্তান। তবে সুফি দরগাগুলি জঙ্গিদের নিশানায় ছিল। যে কট্টরপন্থায় জঙ্গিরা বিশ্বাসী, সে রকম পাঠ এই সুফি দরগায় দেওয়া হয় না বলেই হয়তো এই ধরনের ঘটনা ঘটায় জঙ্গিরা।

এই দরগাতেই ২০১০ সালে ভয়াবহ বিস্ফোরণ ঘটেছিল। তাতে প্রাণ হারিয়েছিলেন ৪০ জন। বছর দুয়েক আগে বালুচিস্তানের সুফি দরগায় আত্মঘাতী হামলায় প্রাণ হারিয়েছিলেন ৪৭ জন। একই ধরনের ঘটনা ভারতেও ঘটেছে। ২০০৭-এ অজমের শরিফে কৌটো বোমা বিস্ফোরণে প্রাণ হারিয়েছিলেন দু’জন। সেই ঘটনায় অভিযোগের আঙুল উঠেছিল জঙ্গি সংগঠন লস্কর-এ-তৈবার দিকে।

তবে লহোরের ঘটনায় কার হাত রয়েছে, সে ব্যাপারে এখনও কিছু জানা যায়নি।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here