আনহুই (চিন) : রাত জেগে ২টো সার্জারি। পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় আরও তিনটে। টানা ২৮ ঘণ্টায় ৫টা সার্জারি শেষে মিলল বিশ্রামের অবকাশ। চিনা চিকিৎসক লুয়ো হেং তখন ক্লান্ত অবস্থায় দু’চোখের পাতা এক করতে বেছে নিলেন হাসপাতালের মেঝে। ১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রাকে তোয়াক্কা না করে একটা মাদুর বিছিয়ে তার ওপরেই ঘুমিয়ে পড়লেন লুয়ো। চিনা সংবাদমাধ্যমের সৌজন্যে সে ছবি পৌঁছে গেল পৃথিবীর নানা প্রান্তে, সোশ্যাল মিডিয়ায়। কাজের প্রতি, নিজের পেশার প্রতি লুয়োর নিষ্ঠার কথা এখন সবার মুখে মুখে।

আনহুই প্রদেশের দিনগিউয়ানের এক হাসপাতালের এই ঘটনা আর তার সঙ্গে মেঝেতে ঘুমিয়ে থাকা তরুণ চিকিৎসকের ছবি মন জয় করেছে পৃথিবীর নানা দেশের মানুষের। চিনা সোশ্যাল মিডিয়া ওয়েইবো তো বটেই, ফেসবুকেও বহু আলোচিত ৩০ মার্চের এই ঘটনা। বেশির ভাগ মানুষই লুয়ো-র কর্তব্যপরায়ণতাকে স্যালুট জানিয়েছেন। অনেকেই আবার আশংকা প্রকাশ করেছেন। “টানা ২৮ ঘণ্টা কাজ করা যেমন চিকিৎসকের নিজের শরীরের পক্ষে ক্ষতিকারক, তেমনই সার্জারির গুণগত মান বজায় রাখার জন্যেও অনুচিত”। অপর্যাপ্ত ঘুম যে কারোর শরীরের পক্ষেই খারাপ, এমন মন্তব্যও এসেছে অনেকের কাছ থেকে। ভারত, বাংলাদেশ, ফিলিপাইন্সবাসীদের অনেকেই বলছেন, এমন ঘটনা চিনেই প্রথম নয়। সব মিলিয়ে সাড়ে তিন হাজারের ওপর মানুষ তাঁদের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়ার পোস্টটিতে। শেয়ার করেছেন ১৯০০ ফেসবুক ব্যবহারকারী।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here