পাক হাসপাতালে তালিবান হামলা, হত ৭০, জখম ১১২

0

পাকিস্তানের বালুচিস্তান প্রদেশের কোয়েটা শহরে এক অসামরিক হাসপাতালে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ ও গুলিতে প্রাণ হারালেন ৭০ জন। আহত অন্তত ১১২ জন। পাক তালিবানের একটি গোষ্ঠী জামাত-উর-আহরার এই হামলার দায় স্বীকার করেছে।   

সোমবার সকালে কাজে যাওয়ার পথে বালুচিস্তান বার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি বিলাল আনওয়ার কাশির গাড়ি লক্ষ করে গুলি চালানো হয়। তাতে তিনি গুরুতর ভাবে আহত হন। আহত আইনজীবীকে নিয়ে আসা হয় কোয়েটা সিভিল হসপিটালে। সেখানেই তিনি প্রাণ হারান। আনওয়ার কাশিকে শ্রদ্ধা জানাতে হাসপাতালে এসেছিলেন বহু মানুষ। এঁদের মধ্যে ছিলেন বেশ কিছু আইনজীবী। এসেছিলেন বহু সাংবাদিকও। শ’ দুয়েক মানুষের জমায়েতে বিস্ফোরণ ঘটে। এবং তার পরেই চলে গুলি। নিহতদের মধ্যে রয়েছেন ডন নিউজের ক্যামেরাম্যান মাহমুদ খান  এবং আজ টিভির ক্যামেরাম্যান শাহদাত খান।

এর পর ওই মানববোমা হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনে নিজেকে উড়িয়ে দেয়।

এই ঘটনার পর শহরে ব্যাপক আতঙ্ক ছড়িয়েছে। ওই হাসপাতাল চত্বরে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। এলাকায় পুলিশ ও সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে।

ঘটনার পর রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী সানাউল্লাহ জেহেরি উচ্চপদস্থ অফিসারদের নিয়ে একটি জরুরি বৈঠক করেন।  বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য নির্দেশ দেন তিনি। দুর্ঘটনার জন্য তিন দিন শোক দিবস পালন করা হবে বলে ঘোষণা করা হয়। সরকারি কার্যালয়ে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখার কথাও ঘোষণা করা হয়।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন