ওয়েবডেস্ক: জাকার্তায় এমন ব্যবস্থা এই প্রথম। আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর থেকে শহরের প্রাণকেন্দ্রে যাতায়াতের জন্য চালু হল ট্রেন চলাচল। বিমানবন্দরে যাতাযাতে যাত্রীদের যে বিপুল যানজটের সম্মুখীন হতে হতো নিয়মিত, এবার তা এড়ানো সহজ হবে বলেই মনে করছে জাকার্তার প্রশাসন।

মঙ্গলবার ৩৮ কিলোমিটার লম্বা রেলপথের উদ্বোধন করলেন ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট জোকো উইডোডো। আগামী বছরের শুরুতেই শহরে উদ্বোধন হবে ভূ-গর্স্থভ পথ এবং লাইট রেল। ‘তিন বছর ধরে কাজ চলার পর অবশেষে সোয়াকর্ন বিমানবন্দর থেকে ট্রেন চলাচলের কাজ সম্পূর্ণ হল’, জানালেন প্রেসিডেন্ট উইডোডো। শহরের এই নতুন পরিবহণ ব্যবস্থায় উপকৃত হবেন প্রায় ১১০০০ যাত্রী।বিমানবন্দর থেকে শহরের বুকে রেল লাইন পাততে খরচ হয়েছে ২৬ কোটি মার্কিন ডলার। সব মিলিয়ে দৈনিক ৩টি ট্রেন ৪২বার  যাতায়াত করবে। প্রথম ২ মাস টিকিটের দাম থাকবে ৫ মার্কিন ডলারের মধ্যে। ২ মাস পেরিয়ে গেলে কিছুটা বাড়বে টিকিটের খরচ, তাও সম দূরত্বে ট্যাক্সি খরচের অর্ধেক।

পৃথিবীর যে দেশগুলো প্রায়শই শিরোনামে আসে যানজটের জন্য, সে তালিকায় ইন্দোনেশিয়া বরাবরই থাকে একেবারে ওপরে। নতুন রেল পথে ট্রেন চলাচল শুরু হওয়ায় সেই যান জট অনেকটাই এড়ানো যাবে বলে আশাবাদী জাকার্তাবাসী। চলতি বছরের আগস্ট মাসে এই শহরেই অনুষ্ঠিত হবে এশিয়ান গেমস। তার আগে শহরের যান জট কমাতে নিঃসন্দেহে একটি চমক আনল সে দেশের প্রশাসন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন