খবর অনলাইন ডেস্ক: করোনাভাইরাস অতিমারি (Coronavirus pandemic) এক ধাক্কায় অনলাইন ক্লাসে ঠেলে দিয়েছে পড়ুয়াদের। স্মার্টফোন, কম্পিউটার অথবা ল্যাপটপে এ ধরনের ক্লাস চলাকালীন এমন কিছু ঘটনা ঘটছে, যা প্রায়শই ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়।

অনলাইনে ক্লাস (Online class) চলাকালীন মাঝেমধ্যেই এক ঘেঁয়েমি ঘিরে ধরে পড়ুয়া-শিক্ষক দু’জনকেই। সেই এক ঘেঁয়েমি কাটাতে শিক্ষকরা মজাও করে থাকেন। মধ্যপশ্চিম আমেরিকার কানসাসের এক শিক্ষক মজা করার জন্যেই অনলাইনে ক্লাস চলাকালীন বাতকর্মের আওয়াজ করতেন। যা শুনে পড়ুয়ারা হাসিতে ফেটে পড়ত।

Loading videos...

শুধু তাই নয়, পড়ুয়ারা এখানেই থেমে না থেকে শিক্ষককে অনুরোধ করত, ফের এক বার বাতকর্ম করার জন্যে। তবে পুরো ঘটনাই শুধুমাত্র মজা করার জন্য। অনলাইন ক্লাসের বিরক্তি কাটিয়ে শিশুদের আনন্দ দিতেই শিক্ষক এই পথ বেছে নিয়েছিলেন।

এমা গিন্ডার নামে এক শিক্ষক জানিয়েছেন, তৃতীয় শ্রেণির পড়ুয়াদের আনন্দ দিতেই তিনি এই কাজটি করতেন। তবে জুম ক্লাসের ওই ভিডিও ক্রমশ ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়। এমনকী ভাইরালও হয়ে যায়।

ক্লাস শুরুতেই তিনি পড়ুয়াদের বই বের করার নির্দেশ দিতেন। আর তার পরেই বাতকর্মের আওয়াজ করতেন। পড়ুয়ারাও এই আওয়াজ শোনার জন্য অপেক্ষা করত। ফলে কেউ-ই এই আওয়াজ শুনতে মিস করত না। হাসিতে ফেটে পড়া পড়ুয়াদের প্রতিক্রিয়া রেকর্ড করতেও ভুলতেন না শিক্ষক।

https://twitter.com/Dyslexic_aDve/status/1339327912978378755?ref_src=twsrc%5Etfw%7Ctwcamp%5Etweetembed%7Ctwterm%5E1339327912978378755%7Ctwgr%5E%7Ctwcon%5Es1_&ref_url=https%3A%2F%2Fpublish.twitter.com%2F%3Fquery%3Dhttps3A2F2Ftwitter.com2FDyslexic_aDve2Fstatus2F1339327912978378755widget%3DTweet

নিজেদের প্রতিক্রিয়ায় কোনো খুদে হয়তো বলেছে, “আমার মনে হচ্ছে ম্যাম বাতকর্ম করলেন”। আবার কোনো বাচ্চা এমনও বলেছেন, “এটা আরও বড়ো ছিল”। এমা নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে ওই ভিডিও শেয়ার করেন। তার পর নেটিজেনদের সৌজন্যে এখন তা ভাইরাল।

আরও পড়তে পারেন: লাইভ সাক্ষাৎকারে নিজের বাতকর্মের আওয়াজ রেকর্ডিং করে শোনালেন ডেভিড ওয়ার্নার!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.