ওয়েবডেস্ক : হিমযুগ এসে গেল বুঝি। এমন ছাড়া আর কী বা ভাবার উপায় আছে। প্রথমে বোম্ব সাইক্লোন। তার পর তার হাত ধরে দারুণ শৈত্য প্রবাহ আর বরফ। উত্তর আমেরিকার পূর্ব উপকূলের তাপমাত্রা এতটাই কমে গেল যে ঘরবাড়ির জানলাদরজাগুলিও তা টের পেল। ঠাণ্ডার কাছে বশ্যতা স্বীকার করতে বাধ্য হল। চিড় খেয়ে গেল তাদের দৃঢ়তায়। শুধু তাই নয়, একশ বছরের বেশি সময়ে এমন ঠান্ডার অভিজ্ঞতা এলাকার মানুষদের আর হয়নি।

বাইরে ঠাণ্ডা যাই হোক না কেন ভাঙা কাচের আত্মকথা আপাতত সোশ্যাল মিডিয়াকে বেশ গরম করে তুলেছে। ঘরবন্দি মানুষের মন মজেছে নিজের নিজের ঘরের জানলার কাঁচের চিড় খাওয়া চিত্র পোস্ট করে ঠাণ্ডার নমুনা তুলে ধরায়।




বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, গোটা এলাকার তাপমাত্রা ৫ থেকে ২০ ডিগ্রি পর্যন্ত কমতে পারে। রবিবার তাপমাত্রা আরও কমতে পারে। শুধুমাত্র নিউইয়র্কেরই শনিবারের তাপমাত্রা প্রায় -১৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। পাশাপাশি এলাকাগুলিও মুড়ে গেছে বরফের মোটা আস্তরণে। এতো অবস্থায় ঠাণ্ডার কামড়ে বন্ধ রাখতে হয়েছে উপকূলবর্তী স্কুলগুলি।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন