christchurch mosque attack
আদালতে ব্রেন্টন।

ক্রাইস্টচার্চ: নিউজিল্যান্ডের ইতিহাসে সব থেকে ভয়াবহ জঙ্গি হামলার পরের দিন অভিযুক্তকে আদালতে হাজির করা হল। তবে আদালতকক্ষে ব্রেন্টন হ্যারিসন টারান্টকে হাসতে দেখা গিয়েছে।

নিউজিল্যান্ড হেরাল্ডের তরফ থেকে বলা হয়েছে, ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে হামলায় অভিযুক্ত করা হয়েছেন ব্রেন্টনকে। সে নিউজিল্যান্ডের ডুনেডিনের অ্যান্ডারসনস বে এলাকার বাসিন্দা। আদালতে যখন ব্রেন্টনকে হাজির করা হয়, তখন তার পরনে ছিল বন্দিদের সাদা পোশাক, হাতে হাতকড়া এবং খালি পা। তার ছবি তোলার সময় সে আলোকচিত্রীদের দিকে তাকিয়ে হাসছিল। তার পাশেই ছিলেন দুই পুলিশ অফিসার। আপাতত ৫ এপ্রিল পর্যন্ত তাকে হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

আরও পড়ুনযখন ক্রিকেট সিরিজে থাবা বসিয়েছে সন্ত্রাসবাদ, অতীতের ঘটনাগুলি

শুক্রবার স্থানীয় সময় বেলা দেড়টা নাগাদ ক্রাইস্টচার্চে পর পর দু’টি মসজিদে হামলা চালায় ব্রেন্টন। অল্পের জন্য ওই হামলা থেকে বেঁচে যান বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সদস্যরা। এই ঘটনায় নিহত হয়েছেন ৪৯ জন।

ঘটনার একযোগে নিন্দা করে ঘটনাটিকে জঙ্গি হামলা বলেই ব্যক্ত করেছেন নিউজিল্যান্ড এবং অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রীরা। শান্ত দেশ নিউজিল্যান্ড এমন ঘটনায় স্তম্ভিত গোটা বিশ্ব।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here