stock exchange jakarta

ওয়েবডেস্ক: আচমকা ভেঙে পড়ল ইন্দোনেশিয়া স্টক এক্সচেঞ্জের দ্বিতীয় তলের মেঝে। প্রায় পুরো তলটিই হুড়মুড়িয়ে কয়েক মিনিটের মধ্যে ভেঙে চুরমার হয়ে যায়। কাচ এবং কাঠের অন্যান্য সামগ্রীও গুঁড়িয়ে যায়।

ঠিক কী কারণে এই ঘটনা ঘটেছে তা নিয়ে এখনও পর্যন্ত কোনো সরকারি বক্তব্য জানানো হয়নি। পুরো ঘটনা পর্যবেক্ষণ এবং পরীক্ষা করে দেখার পরই তা জানানো হবে। কিন্তু স্থানীয় মানুষের বক্তব্য, ২০০০ সালে এই এলাকার যে দু’টি বিল্ডিংয়ে ইসলামিক জঙ্গিরা হামলা চালিয়েছিল, এটি তার একটি। ফলে তখন থেকেই ভিতরে ভিতরে দুর্বল হয়ে পড়েছে ওই বহুতল ভবনটি। তবে পুলিশ মোটেই তেমনটা মনে করে না বলে জানিয়েছে জাকার্তা পুলিশ। তারা দাবি করেছে, ঘটনাস্থল থেকে একটি বোমা উদ্ধার করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, এই ঘটনায় আহত হয়েছেন প্রায় ৫০ জন। এঁদের মধ্যে বেশির ভাগই স্টক এক্সচেঞ্জের কর্মী। এক্সচেঞ্জের প্রেসিডেন্ট ডিরেক্টরের ব্যক্তিগত সচিব ভিন্দি জানিয়েছেন, সোশ্যাল মিডিয়ায় যে ছবি ছড়িয়েছে তা আদতে সত্য। দ্বিতীয় তলটি অকস্মাৎ ভেঙে পড়েছে। কারণ তিনি ওই ঘটনার সময় বিল্ডিংয়েই ছিলেন।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী এক্সচেঞ্জের কর্মী মেঘা কাপুর বলেন, ‘প্রথমে কংক্রিটের স্তর ভেঙে পড়তে শুরু করে। চারি দিক ধুলোয় ভরে যায়। এরপরই জলের পাইপ, ইলেকট্রিকের তার ফাটতে শুরু করে দেয়। আমরা কোনো কিছু ভেঙে পড়ার শব্দ পেয়েই নীচে নেমে চলে আসি। রিসেপশনের উপরের তলে এ রকমের ভয়াবহ দুর্ঘটনা আগে দেখিনি।‘

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন