আমেরিকা-চিন সম্পর্কে তিক্ততা বাড়ল, বাণিজ্যযুদ্ধে নয়া মোড়

0
xi jinping and trump
ফাইল ছবি

ওয়েবডেস্ক: আমেরিকার পণ্যে চিনের শুল্ক বৃদ্ধির পাল্টা দিতে নয়া সিদ্ধান্ত ঘোষণা করলেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ট ট্রাম্প। তিনি শুক্রবার আমেরিকার সংস্থাগুলিকে চিন ছাড়ার নির্দেশ দেন। যার জেরে বিশ্বের দুই বৃহত্তম অর্থনীতির তিক্ত বাণিজ্যযুদ্ধ নতুন মোড় নিল।

সম্প্রতি চিন আমেরিকার পণ্য আমদানির উপর শুল্ক বৃদ্ধি করার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে। চিন আমেরিকার ৭৫ বিলিয়ন ডলারের আমেরিকান পণ্যের উপর শুল্ক বৃদ্ধি করবে এবং আমেরিকার রফতানি করা গাড়ির উপর ২৫ শতাংশ শুল্ক আরোপের কথাও জানানো হয়েছে। এর আগে একই পথ ধরেছিল ট্রাম্প প্রশাসন। আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকেই চিনা পণ্যের উপর আমেরিকার নতুন শুল্কহার চালু হওয়ার কথা। স্বাভাবিক ভাবেই চিন যে প্রতিশোধমূলক আচরণের বহির্প্রকাশ করছে, তা সহজেই উপলব্ধি করছেন ট্রাম্প।

তিনি টুইটারে লিখেছেন, “আমাদের চিন দরকার নেই এবং প্রকৃতপক্ষে এগুলি ছাড়াই আরো ভাল ফল হতে পারে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে বহু বছর ধরে চিন যে পরিমাণ অর্থ চুরি করেছে, তা অবশ্যই বন্ধ করে দেব। এটা বছরের পর বছর ধরে চলতে পারে না”।

পাশাপাশি তাঁর মন্তব্য, “আমাদের দুর্দান্ত আমেরিকান সংস্থাগুলিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, অবিলম্বে চিনের বিকল্প সন্ধান করার। ওই সংস্থাগুলিকে আদেশ দেওয়া হয়েছে, যত দ্রুত সম্ভব ঘরে ফিরে আসার। চিন নয়, আমেরিকাতেই নিজেদের পণ্য তৈরি করুক তারা”।

তবে ট্রাম্পের টুইটের পরেও প্রশ্ন থেকে গিয়েছে। চিনে অপারেশন বন্ধ করে দেওয়ার জন্য ট্রাম্প সে দেশের ঠিক কোন আইন প্রয়োগ করছেন, সেটা স্পষ্ট নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here