টুইটার পকেটে পুরেছেন ইলন মাস্ক! চাকরি থাকবে তো সিইও পরাগ আগরওয়ালের?

0
ইলন মাস্ক, পরাগ আগরওয়াল। প্রতীকী ছবি

নিউইয়র্ক: মালিকানা বদল হয়েছে মাইক্রো ব্লগিং সাইট টুইটারের। সংস্থার একশো শতাংশ শেয়ারের মালিক এখন মার্কিন ধনকুবের ইলন মাস্ক। এই প্রেক্ষিতে সংস্থার সিইও পরাগ আগরওয়াল ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত বলেই ধারণা করছেন অনেকে।

সোমবার ৪ হাজার ১০০ কোটি মার্কিন ডলারের বিনিময়ে টুইটার কেনার জন্য একটি চুক্তি করেছেন মাস্ক। ২০১৩ সাল থেকে একটি পাবলিক কোম্পানি হিসাবেই চলছিল টুইটার। এ বার তা হস্তান্তর হল ব্যক্তিগত মালিকানায়।

এই পরিবর্তনের সঙ্গেই ভারতীয় বশোদ্ভূত প্রযুক্তিবিদ পরাগের ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত হয়ে পড়ল বলে ধারণা ওয়াকিবহাল মহলের। রিসার্চ ফার্ম ইকুইলারের মতে, টুইটারের নিয়ন্ত্রণ পরিবর্তনের সঙ্গেই সংস্থা চাইলে পরাগকে বরখাস্ত করতে পারে। সে ক্ষেত্রে ১২ মাসের মধ্যে তাঁকে বরখাস্ত করা হলে তিনি পেতে পারেন ৪ কোটি ২০ লক্ষ মার্কিন ডলার।

তবে এ ব্যাপারে এখনও পর্যন্ত কোনো বিবৃতি দেয়নি টুইটার। পরাগের তরফেও কোনো মন্তব্য করা হয়নি। সূত্রের খবর, সোমবার সংস্থার কর্মীদের সঙ্গে টাউন হলে বৈঠক করেন পরাগ। অন্য দিকে, শীঘ্রই কর্মীদের সঙ্গে বৈঠকে দেখা করবেন মাস্ক। শোনা যাচ্ছে, তাঁর না কি টুইটারের বর্তমান ম্যানেজমেন্টের উপর ততটা আস্থাও নেই।

আগে টুইটারের চিফ টেকনোলজি অফিসার পরাগ। ২০২১ সালের নভেম্বরে জ্যাক ডরসির কাছ থেকে টুইটারের দায়িত্ব নেন তিনি। ওই বছরের জন্য তাঁর মোট ক্ষতিপূরণ ছিল ৩ কোটি মার্কিন ডলারের বেশি।

একটি মহলের দাবি, পরাগের নেতৃত্বে সে ভাবে লাভের মুখ দেখতে পাচ্ছে না টুইটার। যে কারণে তাঁর উপর ভরসা হারাচ্ছিল সংস্থার ম্যানেজিং বোর্ড। এখন মাস্কের হাতে মালিকা হস্তান্তরের পর তাঁর সম্পর্কে কী সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, সেটাই দেখার!

আরও পড়তে পারেন: 

টুইটারে ‘ছুঁচ’ হয়ে ঢুকে মালিক হয়ে বেরোলেন ইলন মাস্ক

৪,৪০০ কোটি ডলার খরচ করে টুইটার কিনে নিয়ে ইলন মাস্ক বললেন, বাকস্বাধীনতা ফেরানোই লক্ষ্য

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন