খবর অনলাইন ডেস্ক: করোনা মোকাবিলার বড়ো অস্ত্র ভ্যাকসিন। এখনও পর্যন্ত ভ্য়াকসিনের সর্বাধিক দু’টি ডোজ-ই দেওয়া হচ্ছে কোনো ব্যক্তিকে। তবে করোনার ডেল্টা প্রজাতির বিরুদ্ধে কার্যকরী প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলতে তৃতীয় ডোজের অনুমোদনের আবেদন জানাতে চলেছে ফাইজার এবং বায়োএনটেক।

নজরে ডেল্টা

ভারত-সহ এশিয়ার বেশকিছু দেশে ডেল্টা প্রজাতির প্রাদুর্ভাব অত্যধিক আকার ধারণ করেছিল। শুক্রবারই পরিস্থিতি মোকাবিলায় নতুন করে বিধিনিষেধ জারি করেছে থাইল্যান্ড। অলিম্পিক গেমসকে সামনে রেখে টোকিওয় ইতিমধ্যেই বিধিনিষেধ চাপিয়েছে জাপান।

করোনার ডেল্টা প্রজাতির সংক্রমণ ভারতে ব্যাপক প্রভাব ফেলেছিল। বিশ্বের অন্য দেশগুলিও কম-বেশি এই ঘটনার ভুক্তভোগী।

কোভিড ভ্যাকসিনের তৃতীয় ডোজের জন্য নিয়ন্ত্রক সংস্থার কাছে আবেদন জানাতে চলেছে ফাইজার এবং বায়োএনটেক। বৃহস্পতিবার তারা জানিয়েছে, ভ্যাকসিনের তৃতীয় ডোজ ডেল্টা প্রজাতির মোকাবিলায় পর্যাপ্ত প্রতিরোধ গড়ে তুলতে সক্ষম।

অনুমোদনের আবেদন

এনডিটিভির রিপোর্ট অনুযায়ী, কয়েক সপ্তাহের মধ্যে দুই সংস্থা আমেরিকা, ইউরোপ এবং অন্যান্য অঞ্চলের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে এই অনুমোদনের আবেদন জানাতে চলেছে।

প্রাথমিক ট্রায়ালে দেখা গিয়েছে, করোনার মূল প্রজাতির মোকাবিলায় তৃতীয় ডোজ অ্যান্টিবডির স্তরকে দু’টি ডোজের তুলনায় পাঁচ থেকে দশগুণ পর্যন্ত বাড়িয়ে দিতে পারে। এমনকী আফ্রিকায় শনাক্ত হওয়া বিটা প্রজাতির ক্ষেত্রেও এটা প্রযোজ্য।

সংস্থাগুলি জানিয়েছে, তারা ডেল্টার ক্ষেত্রেও একই রকম ফলাফল প্রত্যাশা করেছে। তবে একই সঙ্গে তারা আরও জানিয়েছে, করোনার মারাত্মক স্ট্রেনের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য বিশেষ ভাবে একটি ভ্যাকসিনও তৈরি করছে তারা।

আরও পড়তে পারেন: দ্বিতীয় ঢেউয়ের থেকে শিক্ষা নিয়ে এ বার তৎপর কেন্দ্র, তৃতীয় ঢেউ মোকাবিলায় জরুরি বৈঠক করলেন নরেন্দ্র মোদী

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন