xi jinping and trump
ফাইল ছবি

ওয়াশিংটন: প্রথমে মুখ ঘুরিয়ে নিয়েছিল চিন (China)। এ বার পাল্টা জবাব দিল আমেরিকা (United States)। একটি নির্দেশিকায় জানানো হল, চিনের সমস্ত সংস্থার উড়ান পরিষেবা স্থগিত করবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

মঙ্গলবার আমেরিকার পরিবহণ বিভাগ (DoT) বিবৃতিতে জানায়, “আমেরিকা গত ১ জুন থেকে যাত্রী পরিবহণ শুরুর ব্যাপারে জানিয়েছিল। চিন সরকারের তাদের অনুরোধগুলি অনুমোদনে ব্যর্থ হওয়ায় আমাদের বিমান পরিবহণ চুক্তির লঙ্ঘন করেছে”।

ওই বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, স্থগিতাদেশ আগামী ১৬ জুন থেকে কার্যকর হবে। তবে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প (Donald Trump) যদি নতুন কোনো নির্দেশ দেন, তা হলে এই স্থগিতাদেশ আগেই কার্যকর হতে পারে।

করোনাভাইরাস মহামারির (Coronavirus pandemic) এমনিতেই মার্কিন উড়ান সংস্থাগুলি পরিষেবার মাত্রা হ্রাস করে। তবে সম্প্রতি আমেরিকার ডেল্টা এয়ারলাইন্স চিনে পরিষেবা চালুর আবেদন জানায়। দীর্ঘ দিন অতিবাহিত হলেও চিনের অ-সামরিক বিমান পরিবহণ কর্তৃপক্ষ (CAAC) তাতে অনুমোদন দেয়নি।

স্বাভাবিক ভাবেই করোনা মহামারির আবহে নতুন করে সংঘাতের জড়াল আমেরিকা-চিন। জানা গিয়েছে, এই নির্দেশে আমেরিকায় চারটি চিনা বিমান সংস্থার পরিষেবা স্থগিত হতে চলেছে।

ওই বিবৃতিতে স্পষ্ট ভাবেই বলা হয়েছে, মার্কিন সংস্থাগুলির দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে নেওয়ার কারণেই তারা এই সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছে। তবে আমেরিকার লক্ষ্য মোটেই এই পরিস্থিতিকে জিইয়ে রাখা নয়। উল্টে একটি উন্নত পরিবেশ কাম্য, যেখানে উভয় পক্ষের সংস্থাগুলি তাদের দ্বিপাক্ষিক অধিকারগুলি পুরোমাত্রায় প্রয়োগ করতে সক্ষম হবে।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন