ওয়াশিংটন: কিছু দিন পরেই ভারত সফরে আসবেন মার্কিন বিদেশসচিব মাইক পোম্পেও। তার আগে বিজেপির নির্বাচনী স্লোগান শোনা গেল তাঁর গলায়। বলে উঠলেন ‘মোদী হ্যায় তো মুমকিন হ্যায়।’

ইউএস-ইন্ডিয়া বিজনেস কাউন্সিলের বিশেষ সম্মেলনে বুধবার বক্তব্য রাখেন পোম্পেও। সেখানে তিনি বলেন, “প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তাঁর নির্বাচনী প্রচারে বলেছেন, মোদী হ্যায় তো মুমকিন হ্যায় অর্থাৎ মোদীর পক্ষে সবই সম্ভব। ভারত এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে কী কী সম্ভাবনা রয়েছে, সেই দিকেই নজর দেব আমরা।”

তিনি বলেন, “এ মাসের শেষে ভারত সফরের দিকে আমি মুখিয়ে রয়েছি। পাশাপাশি ভারতের নয়া বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের সঙ্গে দেখা করার জন্যও বিশেষ উৎসাহী।” এই সফরের মধ্যে দিয়ে দুই দেশের সম্পর্ক আরও দৃঢ় হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

আরও পড়ুন অচলাবস্থা অব্যাহত এনআরএসে, এজেসি বোস রোড অবরোধ রোগীর পরিজনদের

বিভিন্ন বিষয়ে দুই দেশের মধ্যে মতপার্থক্য থাকতেই পারে। তবে তাঁর মতে, “আলোচনার মধ্যে দিয়ে সব সমস্যার সমাধান হতে পারে।” উল্লেখ্য, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের একাধিক নিষেধাজ্ঞার প্রভাব পড়েছে ভারতে। ইরান থেকে তেল আমদানিতে নিষেধাজ্ঞা থাকায় সরাসরি প্রভাব পড়েছে এ দেশে। রাশিয়া থেকে অস্ত্র কেনার ব্যাপারেও নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে ওয়াশিংটন।

শুধু ভারত নয়, শ্রীলঙ্কা, জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়াতেও সফর করবেন ট্রাম্পের এই সহযোগী। ‘ইন্ডো-প্যাসিফিক’ অঞ্চলের দেশগুলির সঙ্গে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবসায়িক সম্পর্ককে আরও মজবুত করার জন্যই এই সফর বলে জানানো হয়েছে মার্কিন প্রশাসনের তরফ থেকে। ২৮-২৯ জুন জাপানের ওসাকায় জি-২০ সম্মেলনের মধ্যে দিয়ে তাঁর এই সফর শেষ হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here