বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল দামাস্কাস, সিরিয়ায় বিমান হামলা শুরু যুক্তরাষ্ট্রের

0
252
us airstrike syria

দামাস্কাস: রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহারের বিরুদ্ধে সিরিয়ায় বিমান হামলা শুরু করল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং তার সহযোগী দু’টি দেশ। ইতিমধ্যেই রাজধানী দামাস্কাসে কয়েকটি রকেট হামলা হয়েছে। বিস্ফোরণের শব্দে কেঁপে উঠছে শহর। সিরিয়া প্রশাসন জানিয়েছে, মার্কিন হামলার যোগ্য জবাব তারা দিচ্ছে।

অ্যাসোসিয়েটেড প্রেসের সাংবাদিকরা জানিয়েছেন, পূর্ব দামাস্কাসের আকাশ কমলা হয়ে গিয়েছে। প্রশাসনের তরফ থেকে জানা গিয়েছে, একটি বিজ্ঞান গবেষণা কেন্দ্র ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

সিরীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের ১৩টা রকেটকে আটকে দিয়েছে দেশের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা। ইতিমধ্যে জাতীয়তাবাদী গানে ভরে গিয়েছে দামাস্কাসের রাস্তা। এই হামলার নিন্দা করেছেন সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ।

শুক্রবার রাতেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জানিয়েছিলেন, আসাদকে ‘শিক্ষা দেওয়ার জন্য’ যুক্তরাষ্ট্র এবং তার দুই সহযোগী দেশ সিরিয়ায় রকেট হানা শুরু করেছে। ভবিষ্যতে আসাদ যাতে রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার না করেন সে ব্যাপারে সতর্ক করার জন্য এটা করা হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

নিষিদ্ধ রাসায়নিক অস্ত্র দিয়ে নিজের দেশের নাগরিকদের মারাকে গভীর অপরাধ বলে মন্তব্য করেছেন ট্রাম্প। আসাদের ওপরে চাপ সৃষ্টি জারি থাকবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। তবে এই রকেট হামলা কতক্ষণ জারি থাকবে সে ব্যাপারে কিছু খোলসা করেননি মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

ট্রাম্পের শাসনকালে এই নিয়ে দ্বিতীয় বার কোনো বিদেশি রাষ্ট্রে হামলা চালাল যুক্তরাষ্ট্র। আগের বারও সিরিয়াতেই হামলা চালিয়েছিল তারা। গত বছর এপ্রিলে সিরিয়ার একটি ক্ষেপণাস্ত্র বিমানঘাঁটিতে তোমাহক ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। তার কিছু দিন আগেও রাসায়নিক হামলার অভিযোগ উঠেছিল সিরিয়ার বিরুদ্ধে। তবে সে বার শুধুমাত্র বিমানঘাঁটিকে লক্ষ করেই হামলা চালানো হয়েছিল। এ বার অবশ্য একটা গোটা শহরের ওপরে রকেট বর্ষণ করছে যুক্তরাষ্ট্র।

এর পাশাপাশি সিরিয়ার দুই সহযোগী, রাশিয়া এবং ইরানকেও সতর্ক করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। সিরিয়ার পাশে না থেকে পশ্চিম দেশগুলোর সঙ্গে যুক্ত হওয়ার জন্যও পুতিনকে ‘পরামর্শ’ দিয়েছেন ট্রাম্প।

তবে এই হামলা যে দীর্ঘমেয়াদী হবে না, জাতির উদ্দেশে ভাষণে সে কথাও বলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। খুব দ্রুতই সিরিয়া থেকে নিজেদের বাহিনীকে ফিরিয়ে আনা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। এই মুহূর্তে সিরিয়ায় প্রায় হাজার দুয়েক মার্কিন সৈন্য রয়েছে।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here