vijay mallya and pinky lalwani

ওয়েবডেস্ক: দেনা তো কী হয়েছে! সে ভারত বুঝবে এখন! ফেরার কোটিপতি বিজয় মাল্যর তো আর সত্যি বলতে কী তাতে কিছু যায়-আসে না! আর দ্বিতীয় স্ত্রী এখনও বর্তমান? এখনও তাঁর সঙ্গে আইনমতে বিবাহবিচ্ছেদ হয়নি মাল্যর? তাতেই বা কী! আইন মেনে কোন কাজটাই বা কবে করেছেন তিনি!

ফলে এই মুহূর্তে টাকা তছরুপের বিষয়টিকে এক পাশে সরিয়ে দিয়ে সংবাদমাধ্যমের মৌচাকে ঢিল পড়েছে বিজয় মাল্যর তৃতীয় বিয়ের খবরেই! জানা গিয়েছে, পিঙ্কি লালবানি নামের এক মহিলাকে বিয়ে করতে চলেছেন তিনি। আর তার সঙ্গে সঙ্গেই উঠে আসছে সেই অমোঘ প্রশ্ন- কে এই পিঙ্কি লালবানি?

বিজয় মাল্যর জীবনরহস্যে পিঙ্কি লালবানি জড়িয়ে রয়েছেন বেশ গাঢ় ভাবেই। খবর বলছে, ২০১১ সালে তাঁদের আলাপ হয়। সেই সময়ে পিঙ্কি ছিলেন কিংফিশার বিমানসংস্থার বিমানকর্মী। অর্থাৎ, বিজয় মাল্য-ই তাঁকে চাকরিটা দেন। সেই সময় থেকেই মালিকের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখতে রাখতে এখন তাঁর হৃদয়ের মালিক হয়ে উঠেছেন পিঙ্কি-ই!

তবে, শুধুই বিজয় মাল্য একা নন! ধনকুবেরের পরিবারের সঙ্গেও বেশ ভালো সম্পর্ক রয়েছে পিঙ্কির। মাল্য পরিবারে তিনি এতটাই জনপ্রিয় এবং এতটাই পরিবারের ঘনিষ্ঠ যে বিজয়ের মাকে পর্যন্ত দেখা গিয়েছে নানা সময়ে পিঙ্কির সঙ্গে এখানে-ওখানে ঘোরাঘুরি করতে, কেনাকাটা সারতে!

খবর অনুযায়ী, এটাই হতে চলেছে বিজয় মাল্যর জীবনের তৃতীয় বিয়ে! প্রথম স্ত্রী সমীরা তায়েবজিও ছিলেন বিমানকর্মী, তাঁর সঙ্গে বিবাহিত জীবনের মেয়াদ ছিল খুবই কম, ১৯৮৬ সালে বিয়ে আর ১৯৮৭ সালেই বিবাহবিচ্ছেদ! দ্বিতীয় স্ত্রী রেখা মাল্যর সঙ্গে বিয়ে অবশ্য বলতেই হচ্ছে অনেক দিন টিঁকে রইল, সে-ই ১৯৯৩ সাল থেকে এখনও পর্যন্ত!

অবশ্য সত্যের খাতিরে এটাও স্বীকার করে নিতে হয় যে বিজয়ের জীবনে দীর্ঘস্থায়ী প্রেমিকার জায়গাটা দখল করে রেখেছেন একমাত্র পিঙ্কি-ই! সুসময়ে, অসময়ে, কুসময়ে যে ভাবে তিনি ঘিরে ছিলেন বিজয়কে, তা কেউ-ই অস্বীকার করতে পারছেন না!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here