১১৭-র ভায়োলেট ব্রাউন কি বিশ্বের প্রবীণতম জীবিত মানুষ? গিনেস খতিয়ে দেখছে

0

দুয়ানভালে (জামাইকা) : বয়স ১১৭, ভায়োলেট ব্রাউন বিশ্বের প্রবীণতম মানুষের সম্মান পেতে পারেন। স্বামী-হারানো ব্রাউনের বাস পশ্চিম জামাইকার দুয়ানভালে এলাকায়। ব্রাউন কানে একটু কম শোনেন। নিজের খাবার অবশ্য নিজেই খান। অল্পস্বল্প হেঁটেচলেও বেড়ান। জেরেন্টোলজি রিসার্চ গ্রুপের (বার্ধক্য বিষয়ক গবেষণা গোষ্ঠী) শতায়ু মানুষ সংক্রান্ত গবেষণা ও ডেটাবেস বিভাগের ডিরেক্টর রবার্ট ইয়ং বলেন, গত শনিবার বিশ্বের প্রবীণতম  ইতালির ইম্মা মোরানের মৃত্যুর পর ব্রাউনই বিশ্বের প্রবীণতম জীবিত মানুষ। রবার্ট ইয়ং-এর গোষ্ঠী বিশ্বের প্রবীণ মানুষের খোঁজ তল্লাশি চালায়। যাই হোক, তথ্য বলছে ব্রাউনের জন্ম ১৯০০ সালের ১০ মার্চ। যদিও ‘গিনেস বুক’ এখনও বিশ্বের প্রবীণ মানুষ হিসেবে ব্রাউনের নাম ঘোষণা করেনি।

ব্রাউনের সঙ্গে দেখা করেন ইয়ং। তাঁর জন্মের নথিও খতিয়ে দেখেন। ইয়ং জানান, তাঁর জন্মের সময় জামাইকা ছিল ইংরেজদের অধীনে। ফলে ব্রিটিশ সরকারই তাঁর জন্মের যাবতীয় কাগজপত্রের বৈধতা দিয়েছিল বলে জানান রবার্ট ইয়ং।

ভায়োলেট ব্রাউন সাক্ষাৎকারে বলেন, তিনি চিরকাল নিজের কাজ নিজেই করেছেন। এক জন কৃষক ছিলেন তিনি। ব্রাউন আর তাঁর স্বামী দু’ জনে প্রতি দিন পাহাড়ের ওপরে যেতেন চাষ করতে। চিরকাল ধর্মে বিশ্বাস করেছেন। গির্জায় গেছেন। সময় পেলেই সেখানে সময় কাটিয়েছেন। আজ তাঁর এত বয়সের জন্য তিনি ঈশ্বরকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

জামাইকার প্রধানমন্ত্রী টুইট করে ব্রাউনকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

অবশ্য ‘গিনেস’-এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বিষয়টি এখনও গবেষণাধীন। বেশ কয়েক জনের নথি পরীক্ষা করে দেখতে হবে। অনেক পুরোনো নথি, সেগুলির অবস্থাও বেশ খারাপ। তাই সিদ্ধান্তে আসা খুবই কঠিন ও সময়সাপেক্ষ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here