snake

ওয়েবডেস্ক: খেতে-খামারে সাপের দেখা পাওয়া বিচিত্র কিছু নয়। তার উপরে জায়গাটি যদি হয় টেক্সারের মতো উষ্ণ পরিবেশের, তবে শীতলতার খোঁজে মানুষের ডেরায় জাঁকিয়ে বসাও সাপের পক্ষে অস্বাভাবিক নয়। ফলে, কমোডে বসতে গিয়ে সাপ উঁকি দিচ্ছে দেখে প্রাথমিক বিস্ময়টা সামলে নেন উইলিয়াম টেডরিক।

“সে দিন সকাল থেকেই আমি ব্যস্ত ছিলাম বাড়ি পরিষ্কার করার কাজে। অনেক ক্ষণ ধরে একটা টিক-টিক শব্দ শুনতে পাচ্ছিলাম। কিন্তু বুঝতে পারছিলাম না শব্দটা কোথা থেকে আসছে”, জানিয়েছেন টেডরিক। পাশাপাশি এটাও জানাতে ভোলেননি যে ঘুণাক্ষরেও তাঁর সন্দেহ হয়নি, ওই টিক-টিক শব্দটা বিষধর র‍্যাটল স্নেকের হতে পারে!

“কাজকর্ম সেরে আমি বাথরুমে যাই। কমোডে বসতে যেতেই দেখি, একটা র‍্যাটল স্নেক ভিতর থেকে মাথা তুলছে! দেখেই আমি ছিটকে সরে আসি”, জবানবন্দি টেডরিকের!

প্রাথমিক বিস্ময়টা সামলে নিয়ে এর পর টেডরিক দেখেন সেই সাপটা মাঝে মাঝেই উঁকি দিচ্ছে কমোডের ভিতর থেকে। কিন্তু লোকজনের সাড়াশব্দ পাওয়ায় একেবারে বেরিয়ে আসতে সাহস পাচ্ছে না।

এর পর আর কী! বহু কসরত করে টেডরিক অবশেষে সেই সাপটাকে টেনে বের করে আনেন কমোড থেকে। তার পর তাকে জঙ্গলে ছেড়ে দেন। ভাবছেন, এখানেই ঘটনাটা শেষ?

উঁহু! ওই সাপটাকে ধরার মুহূর্তগুলো ক্যামেরাবন্দিও করেছেন তিনি। তার পর তা ছেড়ে দিয়েছেন ইউটিউবে। দেখতে দেখতে সেই ভিডিও হয়ে গিয়েছে ভাইরাল!

ভাবছেন, কমোড থেকে সাপ ধরার ভিডিওয় এমন কী বিশেষত্ব থাকতে পারে? তাহলে একবার চোখ রাখুন ভিডিওয়। দেখবেন, উইলিয়াম টেডরিকের সাপের সঙ্গে লুকোচুরি খেলা চমকে দেবে আপনাকে!

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন