বিশদ তথ্য পাওয়ার আগেই আতংক! সাউথ আফ্রিকায় মেলা করোনার নতুন প্রজাতির ‘ওমিক্রন’ নাম দিল হু

0

জেনিভা: বিজ্ঞানীরাই বলছেন করোনার নতুন প্রজাতি সম্পর্কে বিশদ তথ্য এখনও পাওয়া যায়নি। তার ভাবগতিক বুঝতে এখনও বেশ কয়েক সপ্তাহ সময় লাগবে। বিস্তারিত সেই তথ্য পাওয়ার আগেই অবশ্য সাধারণ মানুষের মধ্যে আতংকের পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। সংবাদমাধ্যমে যে ভাবে এই প্রজাতিটি নিয়ে চর্চা হচ্ছে, তাতে আতংক তো ছড়ানোই স্বাভাবিক।

এ দিকে, নতুন এই প্রজাতির নামকরণ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO)। নতুন এই ‘বি.১.১.৫২৯’ প্রজাতিকে উদ্বেগজনক বা ‘ভেরিয়েন্ট অব কনসার্ন’ হিসেবে চিহ্নিত করে সেটিকে ‘ওমিক্রন’ নাম দিয়েছে হু। মূলত সাউথ আফ্রিকা ও বৎসোয়ানায় করোনার নতুন এই প্রজাতিতে সংক্রমিত হয়েছেন মানুষজন।

হু জানিয়েছে, নতুন এই প্রজাতিতে উদ্বেগজনক মিউটেশন ঘটেছে। বস্তুত, সেই কারণেই চিহ্নিত হওয়ার প্রায় সঙ্গে সঙ্গে ঝুঁকির সর্বোচ্চ ধাপে রাখা হয়েছে করোনার এই নয়া স্ট্রেনকে। বিজ্ঞানীরা আবার এ-ও মনে করছেন, নয়া প্রজাতির ভাইরাসের শিকার মূলত হচ্ছেন অল্পবয়সিরা।

সাউথ আফ্রিকায় টিকাকরণের হার খুব কম। সে দেশে মোট জনসংখ্যার মাত্র ২৮.৪ শতাংশ মানুষ প্রথম ডোজ পেয়েছে। টিকার দু’টো পেয়েছেন মাত্র ২৩ শতাংশ মানুষ। ফলে সাউথ আফ্রিকার নতুন স্ট্রেনের হদিশ মেলার পেছনে কম টিকাকরণ একটা অন্যতম কারণ হতেই পারে, যা নিয়ে এখনও কোনো উচ্চবাচ্য করেননি বিশেষজ্ঞরা।

উল্লেখ্য, গত বছর ঠিক এই নভেম্বর-ডিসেম্বরে সাউথ আফ্রিকা এবং ব্রিটেনে করোনার নতুন প্রজাতি নিয়ে কম আতংক ছড়ায়নি। কিন্তু সেই প্রজাতিটি বিশেষ প্রভাব ফেলতেই পারেনি বিশ্বে। আবার ফেব্রুয়ারিতে ভারতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হওয়ার পেছনে দায়ী ‘ডেল্টা’ প্রজাতি নিয়ে বিশেষজ্ঞরা আগাম কিছু বলতেও পারেননি।

ফলে, নতুন কোনো প্রজাতির হদিশ পাওয়া গেলেই যে গেল গেল রব তুলতে হবে, তার কোনো প্রমাণ এখনও পর্যন্ত নেই।

আরও পড়তে পারেন:

জিএসটি-র আওতায় অটো রিকশা! কার্যকর ১ জানুয়ারি

কলকাতা পুরভোটের প্রার্থীতালিকায় বড়ো চমক তৃণমূলের

মধ্যপ্রদেশে চলন্ত ট্রেনের কামরায় ভয়াবহ আগুন! আতঙ্কে জানালা দিয়ে লাফ যাত্রীদের, দেখুন ভিডিয়োয়

১৫ ডিসেম্বর থেকে আন্তর্জাতিক উড়ান পরিষেবা চালু করছে ভারত, তবে তালিকা থেকে বাদ ১৪টি দেশ

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন