মলভর্তি সেই বয়াম নিয়ে বক্তৃতা দিচ্ছেন গেট্‌স। ছবি: দ্য উইক

ওয়েবডেস্ক: শেষে কী না মলভর্তি একটি বয়াম নিয়ে বক্তৃতা দিতে উঠলেন বিশ্বের ধনীতম ব্যক্তি বিল গেট্‌স।

ভারতে স্বচ্ছ ভারত অভিযান শুরুর অনেক আগে থেকেই এমন প্রকল্প নেওয়া হয়েছিল চিনে। ঘরে ঘরে শৌচালয় নির্মাণেই শুধু থেমে থাকেনি তারা, বরং বাথরুমে নতুন নতুন প্রযুক্তি বসিয়েছে। শুরু করেছে ‘টয়লেট বিপ্লব।

চিনের এই ‘টয়লেট বিপ্লব’ নিয়ে মঙ্গলবার বেজিংয়ে বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন হয়। সেখানে হাজির ছিলেন বিল গেটস। শৌচালয়ের প্রয়োজনীয়তা এবং উপকারিতা বোঝানোর জন্যই এ রকম ভাবে বক্তৃতা দিতে শুরু করেন গেট্‌স।

নিজের বক্তৃতা রাখতে গিয়ে গেট্‌স বলেন, ‘‘সাফ এবং জীবাণুমুক্ত শৌচালয় না থাকলে মহামারি দেখা দেবে। এমনিতেই খুব খারাপ পরিস্থিতির মধ্যে রয়েছি আমরা। উন্নয়নশীল দেশগুলিতে প্রতি বছর ডায়েরিয়া, কলেরা এবং টাইফয়েডে আক্রান্ত হয়ে ৫ বছরের কম বয়সি ৫ লক্ষ শিশুর মৃত্যু হয়। সকলের জন্য শৌচালয় নির্মাণ করতে না পারলে পরিস্থিতি আরও ভয়ংকর হয়ে উঠবে।” বেঁচে থাকার মৌলিক উপাদানে খাদ্য, বস্ত্র এবং বাসস্থানের পাশাপাশি শৌচালয়কেও স্থান দেওয়ার দাবি তোলেন গেট্‌স।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here