hafeez saeed

লহৌর: গৃহবন্দি দশা থেকে মুক্ত হলেন ২৬/১১ মুম্বই হামলার মূল অভিযুক্ত হাফিজ সঈদ। ছাড়া পেয়েই তাঁর মুখে ফিরে এল কাশ্মীর প্রসঙ্গ। ‘কাশ্মীরের জন্য লড়াই চলবে’, এমন ভাবেই ভারতের উদ্দেশে প্রচ্ছন্ন হুমকি দিলেন জামাত-উদ-দাওয়া নেতা।

জানুয়ারি থেকে গৃহবন্দি ছিলেন সঈদ। তাঁকে গৃহবন্দি রাখার কোনো দরকার নেই বলে বুধবার নির্দেশ দেয় লহৌর হাইকোর্ট। এর পরে শুক্রবারই তাঁর বাড়ির সামনে থেকে পুলিশ প্রত্যাহারে করে নেয় পাকিস্তান সরকার। পাশাপাশি তাঁর বিরুদ্ধে আপাতত আর কোনো আবেদন করা হবে না বলেও সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান।

সঈদ ছাড়া পাওয়ার পরেই তাঁর বাড়ির সামনে ভিড় জমান তাঁর অসংখ্য ভক্ত। ভক্তদের উদ্দেশে তিনি বলেন, “কাশ্মীরের ব্যাপারে যাতে আমি কিছু না বলতে পারি সে কারণেই আমাকে দশ মাসের জন্য গৃহবন্দী করা হয়েছিল।”

তিনি আরও বলেন, “আমি কাশ্মীরের জন্য লড়াই চালিয়ে যাব। কাশ্মীরিদের পাশে থাকার জন্য পাকিস্তানের মানুষের কাছে আবেদন জানাচ্ছি। যত দিন না কাশ্মীর স্বাধীন হচ্ছে, তত দিন আমার লড়াই থামবে না।” এর পর ভারতের বিরুদ্ধে তোপ দেগে সঈদ বলেন, “আমার বিরুদ্ধে অযৌক্তিক অভিযোগ করেছিল ভারত, সে সব কিছুই প্রমাণিত হয়নি। লহৌর হাইকোর্ট প্রমাণ করে দিল আমি নির্দোষ।”

তাঁর কথায়, ভারতের আবেদনে সাড়া দিয়ে তাঁকে গৃহবন্দি করার জন্য পাকিস্তানের ওপরে চাপ সৃষ্টি করে যুক্তরাষ্ট্র। এ দিন তাঁর ভক্তদের অনেককেই মুখেই ভারত বিরোধী স্লোগান দিতে এবং কাশ্মীরের মানুষের প্রতি সহমর্মিতা পোষণ করতে দেখা গিয়েছে। উল্লেখ্য, গত ৩১ জানুয়ারি থেকে গৃহবন্দি ছিলেন সঈদ।

এর আগেও মুম্বই হামলার ঠিক পরেই সঈদকে গৃহবন্দি করেছিল পাকিস্তান, কিন্তু ২০০৯-তে আদালতের নির্দেশেই ছাড়া পেয়ে যান তিনি। তাঁকে ‘গ্লোবাল টেরোরিস্ট’-এর আখ্যা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র এবং রাষ্ট্রপুঞ্জ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here