দুনিয়ার বেশ কিছু গরিব দেশের তুলনায় কোনও কোনও বহুজাতিক সংস্থার সম্পদ যে বেশি, তা নতুন কোনও তথ্য নয়। নতুন যেটা জানা গিয়েছে, তা হল, ১০টি বহুজাতিকের মোট আয়, গ্রহের ১৮০টি দেশের আয়ের যোগফলের চেয়ে বেশি। বেসরকারি সংস্থা ‘গ্লোবাল জাস্টিস নাও’-এর সাম্প্রতিক সমীক্ষায় প্রকাশিত হয়েছে এই তথ্য।

১৮০টি দেশ। সংখ্যাটা শুনেই বোঝা যাচ্ছে, এর মধ্যে বেশ কয়েকটি ধনী দেশও রয়েছে। উদাহরণে আসা যাক, ওয়ালমার্ট, শেল ও অ্যাপলের মোট সম্পদ রাশিয়া, বেলজিয়াম ও সুইডেনের থেকে বেশি। বিশ্বের ১০০টি প্রধান সম্পদশালী দেশ ও সংস্থার মধ্যে ৬৯টিই কোনও না কোনও সংস্থা। গত বছর এই সংখ্যাটা ছিল ৬৩। আর প্রথম ২০০-র মধ্যে এই সংখ্যাটা চোখ কপালে তুলে দেওয়ার মতো। ১৫৩।

বিশ্বের সবচেয়ে ধনী দেশগুলি হল, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, চিন, জার্মানি, জাপান, ফ্রান্স ও গ্রেট ব্রিটেন। তার পরই রয়েছে ইতালি, ব্রাজিল ও কানাডা।

“অসাম্য ও আবহাওয়ার পরিবর্তনের মতো বিশ্বের বহু সমস্যার মূলে রয়েছে, সংস্থাগুলির বিশাল সম্পদ ও ক্ষমতা”, বলছেন ‘গ্লোবাল জাস্টিস নাও’-এর অধিকর্তা নিক ডিয়ার্ডেন। তাঁর আরও বক্তব্য, “চটজলদি লাভের জন্য লড়াই পৃথিবীর কোটি কোটি মানুষের মৌলিক মানবাধিকার হরণ করছে। এই পরিসংখ্যান দেখিয়ে দিল যে সমস্যাটা ক্রমেই বাড়ছে।”

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here