Connect with us

পরিবেশ

‘আপনারা আমার স্বপ্ন চুরি করেছেন’, ক্ষুব্ধ থুনবার্গ দোষী করলেন বিশ্বনেতাদের

Greta Thunberg in UN climate summit

রাষ্ট্রপুঞ্জ: “আপনারা সাহস করেন কী করে?” জলবায়ু পরিবর্তনের মোকাবিলায় কড়া ব্যবস্থা নিতে ব্যর্থ হওয়ায় এ ভাবেই বিশ্বনেতাদের উপর তাঁর রাগ প্রকাশ করলেন গ্রেটা থুনবার্গ।

সোমবার রাষ্ট্রপুঞ্জ আয়োজিত ‘ক্লাইমেট অ্যাকশন সামিট’-এর সূত্রপাত করলেন সুইডিশ ‘ক্লাইমেট কিড’। জলবায়ু নিয়ে বিশ্ব জুড়ে স্কুল-কলেজের ছাত্রছাত্রীদের যে আন্দোলন চলছে, ১৬ বছরের গ্রেটা তার পথিকৃৎ।

আরও পড়ুন: জলবায়ু পরিবর্তনের মোকাবিলায় বিশ্ব জুড়ে গণ-আন্দোলনের ডাক দিলেন মোদী

জলবায়ু পরিবর্তনের মোকাবিলায় জরুরি ভিত্তিতে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়ে বিশ্ব জুড়ে জলবায়ু ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয় ২১ সেপ্টেম্বর। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের তরুণ প্রজন্মের লক্ষ লক্ষ ছেলেমেয়ে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ প্রদর্শন করার দিন দুয়েক পরে রাষ্ট্রপুঞ্জের সাধারণ সভার (জেনারেল অ্যাসেম্বলি) বার্ষিক অধিবেশনে যোগ দিতে আসা বিশ্বনেতারা সেক্রেটারি জেনারেল আন্তোনিও গুতেরেসের ডাকে সোমবার ‘গ্লোবাল ক্লাইমেট সামিট’-এ শামিল হন।

তাঁদের সম্মেলনের উদ্দেশ্য, কার্বন নিঃসরণ বন্ধের যে সব প্রচেষ্টা থমকে গিয়েছে, তাতে নতুন করে প্রেরণা জোগানো।

গ্রেটা দৃশ্যতই একটু আবেগমথিত ছিলেন। শীর্ষ সম্মেলনের শুরুতেই কড়া মন্তব্য করে সবাইকে আলোড়িত করেন। তিনি বলেন, যে সব প্রজন্ম সব চেয়ে বেশি দূষণ সৃষ্টি করেছে তারাই তাঁর এবং তাঁর প্রজন্মের ঘাড়ে জলবায়ু পরিবর্তনের অত্যন্ত বিরূপ প্রভাবের বোঝা চাপিয়ে দিয়েছে।

“গোটা ব্যাপারটাই ভুল। আমার তো এখানে আসার কথা ছিল না। আমার তো সাগরের অপর পারে স্কুলে থাকার কথা ছিল। তবু আপনারা কিছু আশার সন্ধানে আমাদের মতো তরুণ প্রজন্মের কাছে আসছেন। আপনারা সাহস করেন কী করে?” মন্তব্য করেন গ্রেটা।

গ্রেটা বলেন, “আপনারা শুধু ফাঁকা বুলি আওড়েছেন আর আমার স্বপ্ন, আমার শৈশব চুরি করে নিয়েছেন।”

সেক্রেটারি জেনারেল আন্তোনিও গুতেরেসের ডাকা এই শীর্ষ সম্মেলনের উদ্দেশ্য হল, জলবায়ু পরিবর্তনের মোকাবিলায় ২০১৫ সালের প্যারিস চুক্তিকে লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া। তিনি আগেই সংশ্লিষ্ট সরকারগুলিকে বলে দিয়েছিলেন, কিছু বাস্তব পরিকল্পনা দেওয়ার থাকলে তবেই শীর্ষ সম্মেলনে বলার যোগ্যতা অর্জন করা যাবে।

গুতেরেস তাঁর প্রারম্ভিক মন্তব্যে জলবায়ু পরিবর্তনের মোকাবিলা করা যে কতটা জরুরি সেটাই বোঝানোর চেষ্টা করেন এবং জীবাশ্ম জ্বালানি শিল্প বর্জন করার ডাক দেন।

“প্রকৃতি ক্রুদ্ধ হয়েছে। আর আমরা যদি ভাবি আমরা প্রকৃতিকে বোকা বানাতে পারি, তা হলে আমরা নিজেরাই বোকা বনব কারণ প্রকৃতি সব সময়েই প্রত্যাঘাত করে এবং সারা বিশ্ব জুড়েই প্রকৃতি প্রচণ্ড ক্রোধোন্মত্ততায় প্রত্যাঘাত করছে” – মন্তব্য করেন গুতেরেস।

জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে সন্দিহান দুই বিশ্বনেতা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং ব্রাজিলীয় প্রেসিডেন্ট জেয়ার বোলসোনারো এই শীর্ষ সম্মেলনে আসবেন বলে কেউ আশা করেননি। কিন্তু মার্কিন প্রেসিডেন্টকে এ দিন শ্রোতাদের মধ্যে দেখা যায়।

পরিবেশ

একুশ শতকে প্রথম মুক্ত অবস্থায় ঘুরে বেড়াতে দেখা গেল সোনালি বাঘকে

ওয়েবডেস্ক : অসমের কাজিরাঙা অভয়ারণ্যে দেখা মিলল ‘গোল্ডেন টাইগার’ বা ‘সোনালি বাঘ’-এর। একুশ শতকে এই প্রথম মুক্ত অবস্থা ঘুরে বেড়াতে দেখা গেল সোনালি বাঘকে।

রয়েল বেঙ্গল টাইগারের সঙ্গে সাদৃশ্য থাকলেও গায়ের রঙ একেবারেই আলাদা। হলদে নয়, গায়ের রঙে রয়েছে সোনালি আভা আর রয়েছে লালচে খয়েরি ডোরাকাটা দাগ।

সোনালি বাঘের ছবি

বাঘটির ছবি টুইটারে শেয়ার করেছেন আইএফএস অফিসার প্রবীণ কাসওয়ান। তিনি লিখেছে, ‘‘ আপনি কি জানেন আমাদের দেশে সোনালি বাঘও আছে। ২১ শতকে দেখা পাওয়া একমাত্র এই প্রজাতির ‘বিগ ক্যাট’’’।

তিনি জানিয়েছেন, ছবিটি তুলেছেন, ওয়াইল্ড লাইফ ফটোগ্রাফার ময়ূরেশ হেন্ড্রে।

ওই বন আধিকারিক আরও জানিয়েছেন, এই প্রজাতির কয়েকটি বাঘকে চিড়িয়াখানায় দেখা যায়। এই শতকে এখনও পর্যন্ত জঙ্গলে এর দেখা মেলেনি। এই প্রথম মুক্তস্থানে সোনালি বাঘকে ঘুরে বেড়াতে দেখা গেল।

Continue Reading

পরিবেশ

পর্যটকদের গুলিতে মরার জন্য সাউথ আফ্রিকায় ১২ হাজার সিংহ প্রতিপালিত হচ্ছে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সাউথ আফ্রিকার পর্যটনশিল্প নিয়ে এক মর্মান্তিক ঘটনা প্রকাশ করলেন বিখ্যাত ব্যবসায়ী ও মানবদরদী লর্ড অ্যাশক্রফট্‌। শুধুমাত্র পর্যটকরা গুলি করে মারবে বলে কী ভাবে ১২ হাজার সিংহকে সেখানে প্রতিপালন করা হচ্ছে, সে ঘটনাই তাঁর বই এবং তাঁর ফিল্মে প্রকাশ করেছেন তিনি।

‘ল্যাড বাইবেল’-এর এক রিপোর্ট থেকে জানা গিয়েছে, হাড় নিয়ে ব্যবসা করা বা শিকার করে ট্রফি জেতার উদ্দেশ্যে হত্যা করার জন্য দক্ষিণ আফ্রিকায় (South Africa) কী ভাবে এই প্রাণী বড়ো করা হয়, লর্ড অ্যাশক্রফট্‌ (Lord Ashcroft) তাঁর বই ‘আনফেয়ার গেম: অ্যান এক্সপোজ অব সাউথ আফ্রিকা’স ক্যাপটিভ-ব্রেড লায়ন ইন্ডাস্ট্রি’-তে (Unfair Game: An Expose Of South Africa’s Captive-bred Lion Industry) তা প্রকাশ করে দিয়েছেন।

ওই বইয়ের অংশবিশেষ প্রকাশ করেছে দ্য ডেলি মেল। ওই বইয়ে মানবদরদী অ্যাশক্রফট্‌ বর্ণনা করেছেন, কী ভাবে বন্দি অবস্থায় প্রতিপালিত সিংহগুলির অপব্যবহার করা হয় দক্ষিণ আফ্রিকায়।

“প্রতি বছর হাজার হাজার সিংহ খামারে প্রতিপালন করা হয়। জন্মের দু’ এক দিনের মধ্যেই সিংহশাবকগুলোকে তাদের মায়ের কাছ থেকে কেড়ে নেওয়া হয়। আর তাদের পর্যটন শিল্পে বোড়ে হিসাবে ব্যবহার করা হয়। তার পর ‘শিকারের’ নামে হত্যা করা হয় অথবা তাদের হাড় ও শরীরের নানা অংশের জন্য কেটে ফেলা হয়। এশিয়ার তথাকথিত ওষুধ-বাজারে সিংহের হাড় আর শরীরের অংশের নাকি ব্যাপক চাহিদা। যত দিন তারা বেঁচে থাকে তত দিন তাদের খুব কম খাবারদাবার দেওয়া হয়, অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে গাদাগাদি করে রেখে দেওয়া হয় আর খদ্দেরদের খুশি করতে না পারলে বেধড়ক মারধর করা হয়” – তাঁর বইয়ে লিখছেন অ্যাশক্রফট্‌।

বইয়ে আরও লেখা হয়েছে, “দক্ষিণ আফ্রিকায় সকলের চোখের সামনেই এই নোংরা ব্যবসাটি ক্রমশ ছড়িয়ে পড়েছে। পশুজগতের এই রাজকীয় প্রাণীটির উপর যে কী পরিমাণ অত্যাচার চলছে তা কল্পনা করা যায় না।”

‘অপারেশন সিমবা’ (Operation Simba) ও ‘অপারেশন চ্যাসটাইজ’ (Operation Chastise) নামে দু’টি অভিযান গোপনে দু’ বছর ধরে চালিয়ে এই জঘন্য ঘটনা প্রকাশ্যে আনতে পেরেছেন লর্ড অ্যাশক্রফট্‌।

অভিযান চলাকালীন অ্যাশক্রফটের টিম দেখেছে কী ভাবে সিংহশাবকগুলোকে বড়ো করা হয় এবং কী ভাবে হত্যা করা হয়।

একটি ভিডিও-তে দেখা গিয়েছে, কী ভাবে একজন লজ-মালিক একটা গাছে বসা সিংহীকে হত্যা করল এবং তার পর যন্ত্রণায় ছটফট করা আরও একটি সিংহীকে মেরে ফেলল।

লর্ড অ্যাশক্রফট্‌ দাবি করেছেন, সাউথ আফ্রিকায় যে ভাবে ‘লায়ন ফার্মিং’ চলে তাতে যে কোনো মুহূর্তে করোনাভাইরাসের মতো আরও একটি অতিমারি ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

Continue Reading

দেশ

গিরের সিংহ নিয়ে ‘দু’টি খুব ভালো খবর’ শেয়ার করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

খবরঅনলাইন ডেস্ক: গির অরণ্যে (Gir Forest) সিংহের সংখ্যা বেড়েছে। বেড়েছে তাদের বসবাসের এলাকাও। এই সুসংবাদ শুনিয়েছেন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)।

বুধবার সন্ধ্যায় সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট শেয়ার করে প্রধানমন্ত্রী লিখেছেন, “দু’টি খুব ভালো খবর। গুজরাতের গির অরণ্যে বাস করা রাজসিক এশিয়াটিক সিংহের সংখ্যা ২৯ শতাংশ বেড়েছে। আর ভৌগোলিকগত দিক থেকে তাদের ছড়িয়ে থাকার এলাকাও বেড়েছে ৩৬ শতাংশ।”

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর রাজ্য গুজরাতেই গির অরণ্য অবস্থিত। বিশ্বে এশিয়াটিক সিংহের একমাত্র ও শেষ আবাসভূমি হল এই অরণ্য। রাজ্যের বন দফতর জানিয়েছে, গিরে সিংহের সংখ্যা প্রায় ২৯ শতাংশ বেড়ে হয়েছে ৬৭৪।

প্রাণীজগতের যে সদস্যটি এক সময়ে বিলুপ্ত হওয়ার মুখে চলে গিয়েছিল, সেই প্রাণীটির সংখ্যা বৃদ্ধিতে যাঁদের উদ্যোগ রয়েছে তাঁদের এবং সামগ্রিক ভাবে গুজরাতের জনগণকে প্রধানমন্ত্রী ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

গিরের সিংহের ৪টি ছবি শেয়ার করে প্রধানমন্ত্রী লিখেছেন, “যাঁদের প্রচেষ্টায় এই অনবদ্য কৃতিত্ব অর্জন করা সম্ভব হয়েছে তাঁদের সকলকে এবং গুজরাতের জনগণকে সম্মান জানাই।”

গুজরাত সরকার যে তথ্য প্রকাশ করেছে, তা থেকে জানা যাচ্ছে, বর্তমানে ৬৭৪টি এশিয়াটিক সিংহ গির অরণ্যে বাস করে। প্রতি পাঁচ বছর অন্তর সিংহের গণনা হয়। শেষ গণনা হয়েছিল ২০১৫ সালের মে মাসে। সেই গণনায় সিংহের সংখ্যা ছিল ৫২৩।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের জেরে লকডাউনের জন্য এ বছর মে মাসে সিংহগণনা সম্ভব হয়নি। তার পরিবর্তে ৫ ও ৬ জুন রাতে সিংহগণনা করা হয়। সেই সময় পূর্ণিমা ছিল।

সরকারি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘পুনম অবলোকন-এ (পূর্ণিমায় গণনাকাজ)’ দেখা গিয়েছে, সিংহের সংখ্যা ৬৭৪ হয়েছে, ২৮.৮৭% বৃদ্ধি। আজ পর্যন্ত এটাই সিংহের সংখ্যাবৃদ্ধির সর্বোচ্চ হার।

Continue Reading
Advertisement
দেশ20 mins ago

বুলডোজারে নষ্ট করা হচ্ছে ফসল, অপমানে বিষ খেলেন দলিত দম্পতি

বিজ্ঞান7 hours ago

সূর্যাস্তের পর অন্তত ২০ মিনিট দেখুন উত্তর-পশ্চিম আকাশে ধূমকেতু ‘নিওওয়াইজ’, চলবে মাসভর

বাংলাদেশ10 hours ago

বাবা-মায়ের পাশে চিরনিদ্রায় প্লে-ব্যাক সম্রাট এন্ড্রু কিশোর

রাজ্য11 hours ago

প্রকাশিত হয়েছে মাধ্যমিকের ফলাফল, ভরতি কবে এবং কী ভাবে?

প্রযুক্তি13 hours ago

রিলায়েন্সের নতুন ‘জিও গ্লাস’, চশমাটি কী কাজে লাগবে?

রাজ্য14 hours ago

কলকাতার পাশাপাশি চিন্তা বাড়াচ্ছে উত্তরবঙ্গের দুই জেলার করোনা-পরিস্থিতি

Amit Shah
দেশ14 hours ago

মোদী সরকারের অগ্রাধিকারের তালিকায় নারী ও শিশুদের নিরাপত্তা: অমিত শাহ

গান-বাজনা14 hours ago

১২ বছরের পথচলায় ‘মুক্তধারা’র মুকুটে আরও একটি পালক, চালু হল ইউটিউব চ্যানেল

কেনাকাটা

laptop laptop
কেনাকাটা14 hours ago

ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ২৫ হাজার টাকার মধ্যে এই ৫টি ল্যাপটপ

খবরঅনলাইন ডেস্ক : কোভিভ ১৯ অতিমারির প্রকোপে বিশ্ব জুড়ে চলছে লকডাউন ও ওয়ার্ক ফ্রম হোম। অনেকেই অফিস থেকে ল্যাপটপ পেয়েছেন।...

কেনাকাটা4 days ago

হ্যান্ডওয়াশ কিনবেন? নামী ব্র্যান্ডগুলিতে ৩৮% ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস বা কোভিড ১৯ এর সঙ্গে লড়াই এখনও জারি আছে। তাই অবশ্যই চাই মাস্ক, স্যানিটাইজার ও হ্যান্ডওয়াশ।...

কেনাকাটা6 days ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

খবরঅনলাইন ডেস্ক : একে লকডাউন তার ওপর ঘরে থাকার একঘেয়েমি। মনটাকে বিষাদে ভরিয়ে দিচ্ছে। ঘরের রদবদল করুন। জিনিসপত্র এ-দিক থেকে...

কেনাকাটা1 week ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

নজরে