খবরঅনলাইন ডেস্ক: কত বিচিত্র এই মানুষ! করোনাভাইরাসকে (coronavirus) কেন্দ্র করে পার্টি। আর সেখান থেকে জুয়া জেতার ব্যবস্থা। অদ্ভুত শোনাচ্ছে না? বিস্মিত হওয়ার কিছু নেই। এ রকমটাই ঘটছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের (USA) আলবামায় (Albama)। স্থানীয় আধিকারিকরা ঘটনাটিকে প্রথমে গুজব বলে উড়িয়ে দিলেও এখন নিজেরাই বলছে, বাস্তবে এই ঘটনা ঘটছে।

আলবামার টুসকালুসায় (Tuscaloosa) কোভিড ১৯ (Covid 19) পার্টির আয়োজন করছেন যুবক-যুবতীরা। পার্টিতে যোগ দেওয়া সুস্থ মানুষজন যাতে করোনায় সংক্রমিত হতে পারেন তার জন্য করোনা সংক্রমিতদের ডেকে আনা হচ্ছে। সিটি কাউন্সিলের সদস্য ম্যাকিন্সট্রি সংবাদ মাধ্যম সিএনএন-কে এ কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, দমকলের অফিসারদের কাছ থেকে তিনি এই পার্টির বিষয়ে জানতে পেরেছেন।

Loading videos...

তিনি বলেন, “প্রথমে আমরা ভেবেছিলাম এটা গুজব। তার পর আমরা এটা নিয়ে নানা অনুসন্ধান করি। শুধু যে ডাক্তারদের অফিস এই ঘটনা স্বীকার করেছে তা-ই নয়, সংশ্লিষ্ট রাজ্যের অফিস জানিয়েছে, তারাও ব্যাপারটা জানতে পেরেছেন।”

ম্যাকিন্সট্রি বলেন, এ সপ্তাহে সিটি কাউন্সিলে এক প্রেজেন্টেশনের সময় দমকল প্রধান র‍্যান্ডি স্মিথও বলেন, শহরের যুবক-যুবতীরা এ রকম পার্টি দিচ্ছেন। যিনি প্রথম করোনা-আক্রান্ত হচ্ছেন, তাঁকে নগদ অর্থ দেওয়া হচ্ছে।

ভাইরাসের সান্নিধ্যে এসে যিনি প্রথম করোনা-আক্রান্ত হয়েছেন বলে ডাক্তাররা বলছেন তাঁকে টিকিট বিক্রি করে পাওয়া অর্থ থেকে নগদ দেওয়া হচ্ছে। গত কয়েক সপ্তাহে শহরে ও তার আশেপাশের এলাকায় এ রকম বেশ কয়েকটা পার্টি হয়েছে। এবং এ ধরনের পার্টির সংখ্যাটা অফিসাররা যতটুকু জানেন, তার চেয়ে অনেক বেশি বলে মন্তব্য করেন ম্যাকিন্সট্রি।

ম্যাকিন্সট্রি বলেন, “এ সব শুনে তো প্রচণ্ড খেপে গিয়েছিলাম। যে ব্যপারটা এত সিরিয়াস, সেই ব্যাপারটা নিয়ে এ রকম ছেলেখেলা। এটা শুধু দায়িত্বজ্ঞানহীনতারই পরিচয় নয়, তুমি হয়তো শরীরে ভাইরাস নিয়ে বাড়ি যাবে যেখানে তোমার বাবা-মা বা দাদু-দিদা রয়েছেন।”

এ ধরনের পার্টি ভেঙে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে সিটি কাউন্সিল। মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করে এ সপ্তাহেই অর্ডিনান্স জারি করা হয়েছে। এই অর্ডিনান্স সোমবার থেকে কার্যকর হয়েছে।

আলবামার স্বাস্থ্য বিভাগের সঙ্গে সিএনএন যোগাযোগ করেছিল। তাদের সূত্রে জানা গিয়েছে, এখনও পর্যন্ত এখানে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩৯০০০ জন এবং এঁদের মধ্যে মারা গিয়েছেন ১ হাজার জন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.