নিজস্ব সংবাদদাতা, গুয়াহাটি : গ্রেফতার হওয়া জেএমবি (জামাত-উল-মুজাহিদিন বাংলাদেশ) লিঙ্কম্যান জহিদুল ইসলাম ও তার দুই সঙ্গী সহিদুল ইসলাম ও ইউসুফ শেখকে কলকাতা থেকে গুয়াহাটি আনা হল। শুক্রবার পুলিশ তাদের ১৪ দিনের জন্য হেফাজতে নেয়।

২৬ সেপ্টেম্বর কাছাড় থেকে জহিদুলকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। তাকে হেফাজতে নিয়েছিল এনআইএ (ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি)। পুলিশের দাবি, আদতে বাংলাদেশের বাসিন্দা জহিদুলের সে দেশেও স্ত্রী ও সংসার আছে। ভারতে এসে বরপেটায় দোকানে কাজ নেয় সে। ফের বিয়েও করে। ভাড়া থাকছিল নলিগাঁওয়ের ইদ্রিস আলি আহমেদের বাড়িতে। ওই একই বাড়িতে ঘর ভাড়া নিয়ে দাঁতের চিকিৎসা চালাত বরপেটায় জেএমবি স্লিপার সেলের মাথা শাহনুর আলম। পুলিশ জেনেছে, জহিদুলের ভাড়া ঘরেই শাহনুর ও অন্য জেএমবি সদস্যরা দেখা করত। পুলিশ আরও জানতে পেরেছে, করাগারি এমই মাদ্রাসার শিক্ষক সাত্তার মৌলভি, প্রতিবেশী বিএলও খলিলুর রহমানের সাহায্য নিয়ে জহিদুলের নাম সরুক্ষেত্রী সতেরারবাড়ি এলাকার ভোটার তালিকায় তোলেন। মৌলভি ও রহমানকেও গ্রেফতার করেছিল পুলিশ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here