খবর অনলাইন: রেকর্ড করলেন কৃষ্ণনগরের আসিফ আহমেদ, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ছাত্র। ১.১ কোটি টাকা বেতন দিয়ে তাঁকে নিয়েছে গুগল্‌, তাঁর কর্মস্থল হতে চলেছে সিঙ্গাপুর। বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসে এত টাকা বেতনের প্যাকেজে কারও ‘নিযুক্তি’ হওয়া এই প্রথম।

আসিফ শুধু একটা দৃষ্টান্ত নয়, এ বছর যাদবপুরের ছাত্রদের প্লেসমেন্টের দিক থেকে সব চেয়ে ভালো মরশুম চলছে। যাঁদের নিযুক্তি হয়েছে, গড়ে তাঁরা বেতন পাবেন ১০ লক্ষ টাকা, আগে যেটা ছিল ৩ লক্ষ টাকার মতো। বোঝাই যাচ্ছে, ক্যাম্পাস-ঝামেলা শিল্পমহলে বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে, এই আশঙ্কা অমূলক। ক্যাম্পাস-ঝামেলা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তিতে কোনও ক্ষতি করতে পারেনি। এই অভূতপূর্ব ‘প্লেসমেন্ট সিজন’-এ শিক্ষকরা যারপরনাই খুশি। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্লেসমেন্ট অফিসার সমিতা ভট্টাচার্য বলেন, “কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের ২৬ জন ছাত্র মাইক্রোসফট, আমাজন প্রভৃতি সংস্থা থেকে ভালো অফার পেয়েছেন। এঁরা সাড়ে ২৮ লক্ষ টাকা থেকে সাড়ে ৩২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত প্যাকেজ অফার পেয়েছেন। এমনকি মেকানিক্যাল, কেমিক্যাল, সিভিলের মতো বিষয়ের ছাত্রছাত্রীরারাও ভালো বেতন প্যাকেজের প্রস্তাব পাচ্ছেন।”

উপাচার্য সুরঞ্জন দাস এই সময়টাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে ‘অসামান্য মুহূর্ত’ বলে বর্ণনা করেছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের কন্সট্রাকশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সিনিয়র প্রফেসর পার্থপ্রতিম বিশ্বাস জানিয়েছেন, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক স্তরে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় (জেইউ) যে স্বীকৃতি পেয়েছে, এই নিযুক্তির ব্যাপারটা তার সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ। জেইউ এশিয়ার অন্যতম শ্রেষ্ঠ বিশ্ববিদ্যালয় এবং ব্রিকস্‌ গোষ্ঠীভুক্ত দেশগুলিতে প্রথম ১০০টির মধ্যে অন্যতম। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি দফতর জেইউ-কে ২০১৫-১৬ সালে সাহায্যপ্রাপ্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলির মধ্যে শ্রেষ্ঠত্বের দিক থেকে দ্বিতীয় স্থান দিয়েছে।

যে ইন্টারভিউ আসিফের জীবন বদলে দিতে চলেছে, সে সম্পর্কে তিনি বলেন, ইন্টারভিউয়ে তাঁর বিষয়ের উপরেই প্রশ্ন করা হয়েছিল। তিনিও ভালো প্রস্তুতি নিয়েছিলেন। “আমি জানতাম, ভালো ইন্টারভিউ দিয়েছি। তবে বেতনের প্যাকাজ দেখে অবাক হয়ে গিয়েছি।” আসিফ জানিয়েছেন, মার্চে তিনি কনফার্মেশন-এর চিঠি পেয়েছেন। সেপ্টেম্বরে তাঁকে কাজে যোগ দিতে বলা হয়েছে।

আসিফের পরেই দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ‘অফার’টি পেয়েছেন আইটি ইঞ্জিনিয়ারিং-এর ছাত্র বিখ্যাত খোসলা। তিনি হায়দরাবাদে মাইক্রোসফটে যোগ দিচ্ছেন। তাঁর প্যাকেজ ৩০ লক্ষ টাকার বেশি। কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং-এর ফাইনাল ইয়ারের ছাত্র জিষ্ণু মুখোটিকে ৩০ লক্ষ টাকার প্যাকেজ দিয়েছে আমাজন।

সূত্র: দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়া, দ্য হিন্দু বিজনেস লাইন

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here