‘স্বাভাবিক জীবনে বিঘ্ন’: সাত বিচারপতির থেকে ১৪ কোটি ক্ষতিপূরণ দাবি কারনানের

0
153

কলকাতা: সুপ্রিম কোর্টের সাতজন সিনিয়র বিচারপতিকে উদ্দেশ করে চিঠি দিলেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি সি এস কারনান। তাঁকে মানসিক ভাবে বিপর্যস্ত করে স্বাভাবিক জীবনে বিঘ্ন ঘটানোর জন্য ওই সাত বিচারপতির কাছে ১৪ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি করেছেন বিচারপতি কারনান। আদালত অবমাননার অভিযোগে বিচারপতি কারনানের বিরুদ্ধে দিন কয়েক আগেই গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছিল শীর্ষ আদালত। শুক্রবার ১০০জন পুলিশ সমেত রাজ্যের ডিজি নিজে গ্রেফ্রতারি পরোয়ানা নিয়ে কারনানের বাসভবনে গিয়েছিলেন। পরোয়ানা অস্বীকার করে কারনান সুপ্রিম কোর্টের ওই সাত বিচারপতির বিরুদ্ধে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

আরও পড়ুন: বিচারপতির বিরুদ্ধে পরোয়ানা, পাল্টা সিবিআই তদন্তের নির্দেশ, বিচার ব্যবস্থায় নজিরবিহীন দ্বন্দ্ব

 কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি কারনান জানিয়েছেন, তাঁর দাবি না মানলে ওই সাত বিচারপতির বিচারবিভাগীয় এবং প্রশাসনিক কাজকর্ম তিনি বন্ধ করে দেবেন। দু পৃষ্ঠার চিঠিতে সুপ্রিম কোর্টের সাত বিচারপতিকে উদ্দেশে কারনান লিখেছেন, “আপনারা সম্পূর্ণ অসংবিধানিক উপায়ে বেঞ্চ গঠন করে আইন না মেনে স্বতঃপ্রণোদিত ভাবে আমার বিচারবিভাগীয় এবং প্রশাসনিক কার্যাবলী বন্ধ রাখার নির্দেশ জারি করেছেন। আমি দলিত সম্প্রদায়ের প্রতিনিধি হওয়ায় আমায় অপমান করার লক্ষ্যেই এই নির্দেশ জারি করা”। চিঠিতে কারনান আবেদন করেন পুরনো নির্দেশ তুলে তাঁকে কাজে ফেরানো হোক। তিনি আরও বলেন দেশের ১২০ কোটি মানুষের সামনে তাঁকে অপমান করা হয়েছে। 

গত ২৩ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে একটি চিঠি লেখেন কারনান। চিঠির বিষয় ছিল ‘বিচার ব্যবস্থায় ব্যাপক দুর্নীতি’। সেখানে ২০ জন ‘দুর্নীতিগ্রস্ত’ বিচারপতির একটি ‘প্রাথমিক তালিকা’-ও দেন তিনি। সেই ২০জন বিচারপতিকে রক্ষা করার চেষ্টা করছেন সুপ্রিম কোর্টের মুখ্য বিচারপতি সহ বাকি ছ’জন সিনিয়র বিচারপতি, চিঠিতে এই অভিযোগও করেন কারনান।

 

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here