মুম্বই: প্রত্যাশামতোই ভারতের একদিন এবং টি-২০ দলে অধিনায়ক হলেন বিরাট কোহলি। অপ্রত্যাশিত ভাবে দলে প্রত্যাবর্তন ঘটল যুবরাজ সিংহের।
এ দিন মুম্বইয়ে দল নির্বাচনী সভার আগে অবশ্য বিস্তর নাটক হয়। সুপ্রিম কোর্টের রায়ের পরিপ্রেক্ষিতে কে এই নির্বাচনী সভার দায়িত্বভার নেবেন তা নিয়ে বিস্তর জটিলতার সৃষ্টি হয়। হিসেবমতো নির্বাচনী বৈঠকের দায়িত্বে থাকেন বোর্ডের সচিব। কিন্তু সুপ্রিম কোর্ট বিসিসিআই সচিব অজয় শিরকেকে সরিয়ে দেওয়ার পর, যুগ্ম-সচিব পদ থেকে সচিব হিসেবে উন্নীত হন ঝাড়খণ্ড ক্রিকেট সংস্থার সভাপতি অমিতাভ চৌধুরী। ঠিক হয় অমিতাভবাবুর নেতৃত্বেই নির্বাচনী বৈঠক হবে। কিন্তু এখানেও তৈরি হয় বিস্তর জটিলতা। সোমবার শীর্ষ আদালত তাঁদের রায়ে জানিয়েছিল কোনো ব্যক্তি ন’বছরের বেশি বিসিসিআই বা রাজ্য সংস্থার কোনো পদ ধরে রাখতে পারবেন না। অথচ অমিতাভবাবু ঝাড়খণ্ড ক্রিকেট সংস্থায় রয়েছেন ন’বছর হয়ে গিয়েছে। অবশেষে লোঢা কমিটির সুপারিশমতো বিসিসিআই সিইও রাহুল চৌধুরীর নেতৃত্বে নির্বাচনীসভা অনুষ্ঠিত হয়।
ধোনি অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেওয়ায় বিরাট কোহলির অধিনায়ক হওয়াটা ছিল শুধুমাত্র সময়ের অপেক্ষা। তবে যুবরাজ যে প্রত্যাবর্তন ঘটাতে চলেছেন সেটা তাঁর অতি বড়ো সমর্থকও সম্ভবত ভাবতে পারেননি। এ বার রঞ্জি ট্রফিতে দুর্দান্ত খেলেছেন যুবি। সেই পারফরম্যান্সের পুরস্কার হিসেবেই তাঁকে দলে রাখা হল বলে মনে করা হচ্ছে। বাকি দল অবশ্য মোটামুটি অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজের জন্য দলে রাখা হয়েছে বিস্ফোরক বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান ঋষভ পন্থকে।
প্রায় দশ বছর পর শুধুমাত্র সাধারণ খেলোয়াড় হিসেবেই খেলতে দেখা যাবে মহেন্দ্র সিংহ ধোনিকে। গোটা দলের সঙ্গে কেমন ভাবে নিজেকে মানিয়ে নেন ধোনি সেটাই এখন দেখার।
একদিনের দল: কোহলি (অধিনায়ক), রাহুল, ধাওয়ান, ধোনি, মনিশ পাণ্ডে, কেদার যাদব, যুবরাজ, রাহানে, হার্দিক, অশ্বিন, জাদেজা, মিশ্র, বুমরাহ, ভুবনেশ্বর, উমেশ।
টি ২০ দল: কোহলি (অধিনায়ক), রাহুল, মনদীপ, ধোনি, মনিশ পাণ্ডে, সুরেশ রায়না, যুবরাজ, ঋষভ পন্থ, হার্দিক, অশ্বিন, জাদেজা, যজুবেন্দ্র চহ্বল, বুমরাহ, ভুবনেশ্বর, আশিস নেহরা। 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here