Jump
ছবি প্রতিনিধিত্বমূলক

কলকাতা: পোস্তার ১১ নম্বর বটতলা স্ট্রিটের একটি বাড়ির চার তলা থেকে মরণঝাঁপ দিলেন এক শিশু-সহ একই পরিবারের ৩ সদস্য। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, ওই বাড়ির চার তলা থেকে তাঁরা প্রথমে দেখেন এক প্রৌঢ়াকে ঝাঁপ দিতে। এর পর একটি বছর দুয়েকের কন্যাসন্তানকে নিয়ে ঝাঁপ দেন ওই প্রৌঢ়ার মেয়ে। যদিও পুলিশ পুরো ঘটনার তদন্তে নেমেছে।‌

সোহিনী কাপাডিয়া, ইন্দ্রাণী মহতা এবং তাঁর দু’‌বছরের মেয়েকে গুরুতর ভাবে জখম অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি কোনো দুর্ঘটনা নাকি নিছক আত্মহত্যা , অথবা এর নেপথ্যে অন্য কোনো কারণ রয়েছে, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

এই ঘটনার পর পুরো এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। এলাকার লোক এসে জড়ো হন ঘটনাস্থলে। পুলিশ খবর পেয়েই দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে ঝাঁপ দিয়ে পড়া অংশটিকে ঘিরে ফেলে। আপাতত ওই পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করছে পুলিশ।

প্রতিবেশীরা জানান, এই ঘটনার সময় বাড়িতে ছিলেন ওই প্রৌঢ়া এবং তাঁর মেয়ে-নাতনি৷ পুলিশই পরিবারের অন্যান্যদের খবর দেয়৷ তড়িঘড়ি হাসপাতালে পৌঁছান তাঁরা৷ ঠিক কা কারণে দুধের শিশুকে সঙ্গে নিয়ে বহুতল থেকে ঝাঁপ দিলেন প্রৌঢ়া এবং তাঁর মেয়ে, তা নিয়ে তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা৷ এমনকী পরিবারের অন্যা্ন্য সদস্যরাও এ ব্যাপারে কিছু অনুমান করতে পারছেন না বলে জানা গিয়েছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here