কলকাতা: আগের বারের থেকে এ বার আরও এগোল তৃণমূল। ২০১৫ সালের পুরভোটে তৃণমূল পেয়েছিল ১১৩টি আসন। ২০২১-এ ফলাফলের প্রবণতা বলছে আরও বেশি ঝুলিতে ভরতে চলেছে রাজ্যের শাসক দল। তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে এ বারের পুরনির্বাচনে এক সাংসদ এবং ছয় বিধায়ককে টিকিট দিয়েছিল তৃণমূল। তাঁদের প্রত্যেকেরই মুকুটেই জুড়ল পুরভোটে জয়ের পালক।

এক নজরে সাত প্রার্থী

১. ৮৮ নম্বর ওয়ার্ড থেকে ষষ্ঠবার লড়াইয়ে ছিলেন তৃণমূল প্রার্থী মালা রায়। এ বারও তিনি জয়ী। তিনি কলকাতা দক্ষিণের সাংসদ।

২. পুরসভার প্রাক্তন মেয়র ফিরহাদ হাকিম ৮২ নম্বর ওয়ার্ড থেকে প্রার্থী হয়েছিলেন।তিনি কলকাতা বন্দরের বিধায়ক এবং রাজ্যের পরিবহণমন্ত্রী।

৩. রাসবিহারীর বিধায়ক দেবাশিস কুমার। এ বারের পুরভোটে ৮৫ নম্বর ওয়ার্ড থেকে বিপুল ভোটে জিতলেন দেবাশিস কুমার। ৯ হাজার ৮৩৬টি ভোটে জিতেছেন তিনি।

৪. যাদবপুরের বিধায়ক দেবব্রত মজুমদার প্রার্থী হয়েছিলেন ৯৭ নম্বর ওয়ার্ডে। ৯ হাজার ৮৩৬ ভোটে জয়ী তৃণমূল প্রার্থী দেবব্রত।

৫. অষ্টম বারের জন্য ১১ নম্বর ওয়ার্ডে জিতলেন অতীন ঘোষ। তিনি কাশীপুর-বেলগাছিয়ার বিধায়ক।

৬. বেলেঘাটার বিধায়ক পরেশ পাল প্রার্থী হয়েছিলেন ৩১ নম্বর ওয়ার্ডে।

৭. পুরসভার ১৩১ নম্বর ওয়ার্ডে প্রার্থী হয়েছিলেন বেহালা পূর্বের বিধায়ক রত্না চট্টোপাধ্যায়। বিধানসভার পর পুরভোটেও তিনি জিতলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়ের ছেড়ে যাওয়া ওয়ার্ডে।

কলকাতা পুরভোটের লাইভ আপডেট: কলকাতা দখলের পথে তৃণমূল কংগ্রেস, একাধিক ওয়ার্ডে দ্বিতীয় স্থানে বামফ্রন্ট

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন