প্রতীকী ছবি

কলকাতা: সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ এবং পুলিশ প্রশাসনকে কার্যত তোয়াক্কা না করেই দীপাবলির রাতে দেদার শব্দবাজি ফাটল কলকাতায়। এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ৯৩ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে খবর, বুধবার বিকেল ৪টে থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত কলকাতার বিভিন্ন থানায় শব্দবাজি নিয়ে ৫০টি ও লাউড স্পিকার নিয়ে ২টি অভিযোগ দায়ের হয়। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ ছিল রাত ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত বাজি পড়ানো যাবে। কিন্তু সেই কথা কানেই দেয়নি শহর কলকাতার অনেক বাসিন্দাই। পরিবেশকে বিষিয়ে দিতে খুব সচেষ্ট ছিলেন তাঁরা।

শুধু শব্দবাজিই নয়, প্রশাসনের নির্দেশ অমান্য করে দেদার উড়েছে ফানুসও। দমদম বিমানবন্দর সংলগ্ন এলাকায় ফানুস উড়তে দেখা যায়। কলকাতার পাশাপাশি সল্টলেকেও শব্দবাজির তাণ্ডব লক্ষ্য করা যায়।

আরও পড়ুন কালীপুজোকেও ছাড়িয়ে গেল দীপাবলির রাত, দূষণে সর্বকালীন রেকর্ড কলকাতার

উল্লেখ্য, কালীপুজোর রাতের থেকেও দীপাবলির রাতে কলকাতার দূষণের মাত্রা ব্যাপক ভাবে বেশি ছিল। মঙ্গলবার রাত বারোটা নাগাদ যখন বাতাসের মান সংক্রান্ত সূচক (একিউআই) ছিল ৬০০, সেখানে বুধবার তা দাঁড়ায় ৭৪৫-এ।

এই পরিস্থিতিকে নিজের হতাশা চেপে রাখতে পারেননি পরিবেশবিদ সুভাষ দত্ত। সাধারণ মানুষকে এখনও বোঝানো যায়নি বলে হতাশা প্রকাশ করেন তিনি। পাশাপাশি প্রশাসনের তরফ থেকেও কিছু গাফিলতি ছিল বলে জানান তিনি।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here