বেহালায় জোড়া খুনের কারণ ঘিরে ধোঁয়াশা, খুলছে না একাধিক জট

0

কলকাতা: বেহালার পর্ণশ্রীতে মা ও ছেলের জোড়া খুনকাণ্ডে ক্রমশ ঘনীভূত হচ্ছে রহস্য। জট খুলছে না একাধিক প্রশ্নের।

সোমবার রাতে কাজ থেকে বাড়িতে ফিরে গৃহকর্তা তপন মণ্ডলই প্রথম দেখেন স্ত্রী ও ছেলের নিথর দেহ। নিহতরা হলেন সুস্মিতা মণ্ডল (৪৫) এবং তাঁর ছেলে তমোজিৎ মণ্ডল (১৪)।

মা-ছেলের দেহের ময়নাতদন্তের প্রাথমিক রিপোর্ট অনুয়ায়ী, বিকেল ৩টে থেকে ৪টের মধ্যেই খুন করা হয়েছে তাদের। মৃতদের পাকস্থলীতে খাবার মিলেছে। নমুনা দেখে তদন্তকারীদের অনুমান, সচেতন অবস্থাতেই ধারালো কোনো অস্ত্র দিয়েই খুন করা হয় নিহতদের। সুস্মিতার শরীরে ২০ জায়গায় ও তমোজিতের দেহে ৫টি ক্ষতচিহ্ন মিলেছে। তবে সচেতন অবস্থায় খুন করা হলেও সে অর্থে প্রতিরোধের কোনো চিহ্ন বা আঘাত মেলেনি।

আবার পুলিশ সূত্রে এমনটাও বলা হয়েছে, এই জোড়া খুনের নেপথ্যে রয়েছে পরিবারের কোনো পরিচিত। আবাসনের বাসিন্দারা জানান, ওই আবাসনের গেট তালাবন্ধ থাকে। গোয়েন্দাদের দাবি, পরিচিত কাউকে দেখেই চাবি দেন গৃহকর্ত্রী।

জোড়া খুনকাণ্ডে আটক সুস্মিতার স্বামী তপন মণ্ডলকে ম্যারাথন জিজ্ঞাসাবাদ করছেন তদন্তকারীরা। জানা গিয়েছে, ঘটনার দিন দুপুর থেকে বিকেলের মধ্যে প্রায় ৬-৭ বার স্ত্রীকে ফোনও করেন তপন। তবে তাঁর জামাই খুন করতে পারেন না বলেই দাবি করেছেন সুস্মিতার বাবা।

মৃত সুস্মিতা মণ্ডলের বাবা তাঁর জামাইকে নির্দোষ বলেই মনে করছেন। তিনি সংবাদ মাধ্যমের কাছে বলেন, “কী আছে না আছে, জানি না। জামাই যদি দোষী হত, থানা ওকে গ্রেফতার করত। লালবাজার ওকে ছেড়ে দিয়েছে। দোষী কে, তাকে খুঁজে বের করা হোক। তার শাস্তি চাইছি”।

অন্য দিকে এই ঘটনায় উঠে এসেছে তমোজিতের শিক্ষকের নাম। তাঁকেও জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন গোয়েন্দারা। তিনি অবশ্য প্রথম থেকেই দাবি করে আসছেন, নীচের গেট খোলা থাকায় তিনি উপরে উঠে গিয়েছিলেন। সেখানে গিয়ে কলিং বেল বাজান, দরজায় চাপড় মারেন। কিন্তু কোনো প্রত্যুত্তর না পেয়ে ফোন করেন। তাতেও সাড়া না মেলায় তিনি চলে যান।

তদন্তকারীরা যখন ঘরে ঢুকেছিলেন, তখন দেখেন ঘরের বেসিন ছিল রক্তে মাখা। মেঝেতে পড়ে ছিল বটি ও ছুরি। পুলিশ সেগুলিকে পরীক্ষার জন্য পাঠিয়ে দেওয়া হয়। এই ঘটনার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট প্রত্যেকের মোবাইলের কলরেকর্ডও পরীক্ষা করছে পুলিশ।

নিহতদের ফ্ল্যাটে কাদের যাতায়াত ছিল? তাঁদের সঙ্গে ওই পরিবারের সম্পর্ক কেমন ছিল? সে সব জানতেই পরিতিদের তালিকা তৈরি করছে পুলিশ।

আরও পড়তে পারেন: বেহালার পর্ণশ্রীতে মা ও ছেলের নৃশংস খুনের ঘটনায় গৃহশিক্ষককে জিজ্ঞাসাবাদ

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন