Mamata-Banerjee-MOC
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

ওয়েবডেস্ক : আদিবাসীদের ভিটেমাটি থেকে উৎখাত করে শিল্পায়ন রোধে বিশেষ আইন আনছে রাজ্য সরকার। বৃহস্পতিবার বিধানসভায় এ কথা জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে আদিবাসীদের জমি দখল করে শিল্পায়ন চলছে। এর প্রতিবাদও হচ্ছে। সেই সময়ে দাঁড়িয়ে মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণা ঐতিহাসিক বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

মুখ্যমন্ত্রী এ দিন বিধানসভায় বলেন, কোনও অজুহাতেই আদিবাসীদের ভিটেমাটি ছাড়া করা চলবে না। শিল্পায়নের জন্য আদিবাসীদের জমি নেওয়ার কথা ভুলে যান।

তিনি বলেন, বাংলা ছাড়া আর কোনো রাজ্য সরকারই আদিবাসীদের উন্নয়নে কোনো সুচিন্তিত পরিকল্পনা নেয়নি। তাঁর সরকারের আমলেই আদিবাসীদের শিক্ষার হার বেড়েছে। মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকে সাঁওতালি ভাষায় প্রশ্নপত্র হচ্ছে। এমনকি অলচিকি ভাষায় রাজ্য সরকারে মুখপত্র ছাপা হচ্ছে।

আরও পড়ুন : লোকায়ুক্ত বিল: বিধানসভায় এক জোট বাম-কংগ্রেস-বিজেপি, মুখ্যমন্ত্রী বললেন, “কৈফিয়ত দেব না”

আদিবাসীদের জমি হস্তান্তর রোধ আইন আনার পাশাপাশি ১৯৭৯ সালে সুন্দরবনের মরিচঝাঁপি ‘গণহত্যায়’ নিহতদের স্মৃতিসৌধ গড়বে রাজ্য সরকার।

রাজনৈতিকমহলের মতে, এই ঘোষণায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এক ঢিলে দুই পাখি মারলেন। বিজেপি দাবি করেছে, জঙ্গলমহলে তাদের জমি বেশ শক্ত হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণা জঙ্গলমহলে আদিবাসীদের মন জয়ে অনেকটাই সক্ষম হবে। পাশাপাশি, আদিবাসীদের জমি অধিগ্রহণ সমস্যা শুধু রাজ্যের সমস্যা নয়, এটি সর্বভারতীয় সমস্যা। তাই লোকসভায় ভোটের আগে তাঁর এই ঘোষণায় সর্বভারতীয়স্তরেও একটি বার্তা তুলে ধরবে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here