Connect with us

কলকাতা

ডেঙ্গি বনাম সিএবি: কলকাতায় বিজেপি-কংগ্রেস সংঘর্ষ

BJP and Congress

ওয়েবডেস্ক: মধ্য কলকাতায় চাঁদনিচকের কাছে সংঘর্ষে জড়ালেন বিজেপি ও কংগ্রেস কর্মীরা। জানা গিয়েছে, বিজেপি কর্মীরা যখন নাগরিকত্ব বিল পাশের আনন্দ উদযাপন করছিলেন, ঠিক তখনই রাজ্যে ডেঙ্গি প্রতিরোধ নিয়ে কংগ্রেসের একটি মিছিল ওই স্থান দিয়ে যায়। এর পরই দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এমনিতে নাগরিকত্ব (সংশোধনী) বিল বা সিএবি নিয়ে উত্তাল গোটা উত্তর-পূর্ব ভারত। বিলটির প্রতিবাদে কার্যত আগুন জ্বলছে অসম, ত্রিপুরার বিভিন্ন জায়গায়। এহেন পরিস্থিতিতে ডেঙ্গিতে মৃত্যু ঠেকাতে রাজ্যের ব্যর্থতা এবং নাগরিকত্ব বিলের প্রতিবাদে মিছিলের আয়োজন করে কংগ্রেস। শুক্রবার দুপুর মহম্মদ আলি পার্ক থেকে শুরু হয় মিছিল। গন্তব্য ছিল কলকাতা পুরসভা।

মহম্মদ আলি পার্ক থেকে ঢিল ছোড়া দূরত্বে রাজ্য বিজেপির সদর দফতর। স্বাভাবিক ভাবেই উত্তেজনা এড়াতে আগে থেকেই মোতায়েন ছিল পুলিশ বাহিনী। কিন্তু ধর্মতলামুখী কংগ্রেসের মিছিল বিজেপির কার্যালয়ের কাছে আসতেই বচসায় জড়িয়ে পড়েন দু’পক্ষের কর্মীরা। সেখান থেকেই শুরু হয় সংঘর্ষ।

কংগ্রেস কর্মীদের অভিযোগ, মিছিল বিজেপির কার্যালয়ের কাছাকাছি জায়গায় আসতেই তাঁদের উদ্দেশে জলের বোতল এবং লাঠি ছোড়া হয়। বিজেপি সমর্থকদের আক্রমণে কংগ্রেসের বেশ কয়েকজন কর্মী আহত হন বলেও দাবি করা হয়।

[ আরও পড়ুন: ডিজিপির কনভয়ে পাথর, বিজেপি বিধায়কের বাড়িতে আগুন, কারফিউতেও উত্তাল অসম ]

যদিও বিজেপি এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে। তাদের পাল্টা অভিযোগ, কংগ্রেস কর্মীরা মিছিল থেকে মোদী-বিরোধী স্লোগান দিতে দিতেই বিজেপি কর্মীদের উপর আক্রমণ চালায়।

কলকাতা

ময়দানে মদ্যপদের হাতে ‘নৃশংস’ ভাবে খুন সিভিক ভলান্টিয়ার

এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।

প্রতীকী ছবি

কলকাতা: মদ্যপানকে কেন্দ্র করে শুরু হওয়া বচসা থামাতে গিয়ে ‘নৃশংস’ ভাবে খুন হতে হল ময়দান থানার এক সিভিক ভলান্টিয়ারকে। জানা গিয়েছে, শনিবার রাতে হেস্টিং মাজারের কাছে এক দল মদ্যপের হাতে আক্রান্ত হন বছর ছত্তিশের ওই যুবক।

পুলিশ সূত্রে খবর, নিহত যুবকের নাম ইরশাদ হোসেন ওরফে মহম্মদ সানি। তাঁর বাড়ি একবালপুর থানা এলাকায়।

ঘটনায় প্রকাশ, শনিবার মাঝরাতে আচমকাই তিনি দেখেন হেস্টিংস মাজারের কাছে বেশ কয়েকজন মদ্যপান করছে। মাঠে বসা নিয়ে দুই গোষ্ঠীর মধ্যে বচসা বেঁধেছে। দু’পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি শুরু হয়ে যায়। এ ভাবে বচসায় জড়িয়ে পড়তে দেখে কর্তব্যরত ইরাশাদ তাদের থামাতে যান। একটি মহলের দাবি, মদ্যপরা তাঁর পূর্বপরিচিত। সে সময় তিনি ডিউটিতে থাকায় অশান্তি থামাতে এগিয়ে যান।

এমনটাও জানা যায়, তাঁর মাথায় ইট দিয়ে সজোরে আঘাত করে মদ্যপরা। এর পর বিদ্যাসাগর সেতুর লোহার পাটাতনেও বেশ কয়েকবার তাঁর মাথা ঠুকে দেওয়া হয়। তবে ইটের আঘাতে রক্তপাত ঘটেনি বলে অন্য একটি মহলের দাবি।

এই ঘটনার পর অচৈতন্য অবস্থায় রাস্তায় লুটিয়ে পড়েন ইরশাদ। পরিস্থিতি বেগতিক বুঝে পালিয়ে যায় অভিযুক্তরা। পরে স্থানীয়রা ইরশাদকে হাসপাতালে নিয়ে যান। এসএসকেএম হাসপাতালের ট্রমা কেয়ার সেন্টারে নিয়ে যেতে যেতেই লুটিয়ে পড়েন তিনি।

প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে, মাথায় আঘাত লাগার ফলে তাঁর মৃত্যু হয়ছে। এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। আটকদের মধ্যে রয়েছে মুন্না নামে স্থানীয় এক যুবক এবং আরও দু’জন। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে জড়িতদের সন্ধান চলছে।

Continue Reading

কলকাতা

কলকাতা পুরসভার ১৬টি বরোর মধ্যে ন’টিতে নেই কনটেনমেন্ট জোন

কলকাতা পুরসভার ১৬টি বরোর মধ্যে ন’টিতে নেই কোনো কনটেনমেন্ট জোন।

কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা বেড়ে ৩৭। ফাইল ছবি

কলকাতা: গত ২৪ জুলাই কলকাতা পুরসভা এলাকায় করোনাভাইরাস কনটেনমেন্ট জোনের (Coronavirus Containment Zone) সংখ্যা ছিল ৩১। আগস্ট মাসের শুরুতেই সেই সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৩৭। তবে একই সঙ্গে জানা গিয়েছে, কলকাতা পুরসভার ১৬টি বরোর মধ্যে ন’টিতে নেই কোনো কনটেনমেন্ট জোন।

শেষ কয়েক দিন উত্তর কলকাতায় নতুন সংক্রমণের হার উল্লেখযোগ্য ভাবে নিম্নমুখী। কিন্তু উত্তরে সংক্রামিত এলাকা কমলেও কলকাতা পুরসভার (Kolkata Municipal Corporation) কাছে মাথাব্যথার কারণ এখন পূর্ব কলকাতা ও দক্ষিণ-পূর্ব কলকাতা। কয়েক দিন আগেই বেলেঘাটা, উল্টোডাঙা, কাঁকুড়গাছি, ফুলবাগান চত্বরে সংক্রমণ কিছুটা নিয়ন্ত্রণে এসেছিল। কিন্তু নতুন তালিকায় দেখা যাচ্ছে, সেখানেও বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা।

একই ধরনের ঘটনা ধরা পড়ছে দক্ষিণ-পূর্ব এলাকার বাইপাস সংলগ্ন মুকুন্দপুর এবং পাটুলি এলাকাও। বিশেষত, বহুতলগুলিতে আক্রান্তের সংখ্যা তুলনামূলক ভাবে বাড়ছে।

অন্য দিকে যে বরোগুলিতে কোনো কনটেনমেন্ট জোন নেই সেগুলি হল ১, ২, ৪, ৫, ৬, ৭, ১১, ১৪ ও ১৫ নম্বর বরো।

তবে স্বাস্থ্য দফতরের পরিসংখ্যান বলছে, কলকাতা পুরসভার নতুন সংক্রমিত এলাকার তালিকায় বস্তির সংখ্যা কম, বহুতল বেশি। এই তালিকায় বস্তি এলাকা রয়েছে পাঁচটি, কমপ্লেক্স বা বহুতল রয়েছে ১০টি, মাল্টিপল প্রেমিসেস রয়েছে ছ’টি, ফ্ল্যাট রয়েছে ছ’টি, মিক্সড এরিয়া রয়েছে ন’টি এবং বাজার এলাকা রয়েছে একটি।

রাজ্যের সামগ্রিক করোনা পরিস্থিতি

শনিবার রাতে স্বাস্থ্য দফতর জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২,৫৮৯ জন। এর ফলে রাজ্যে এখন মোট করোনা-আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৭২,৭৭৭। ৪৮ জনের মৃত্যু হওয়ায় রাজ্যে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১,৬২৯। মৃত্যুহার এখন ২.২৩ শতাংশে এসেছে।

অন্য দিকে রাজ্যে এক দিনে করোনামুক্ত হয়েছেন ২,১৪৩ জন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৫০,৫১৭ জন। সুস্থতার হার এখন বেড়ে হয়েছে ৬৯.৪১ শতাংশ। রাজ্যে বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ২০,৬৩১।

Continue Reading

কলকাতা

ভোজনরসিকদের জন্য সুখবর! কলকাতায় এল ‘কিউমিন’

শুক্রবার কলকাতায় সাড়ম্বরে আত্মপ্রকাশ করল ‘কিউমিন’।

ছবি: সংস্থার সৌজন্যে

কলকাতা: ইন্ডিয়ান হোটেলস কোম্পানি লিমিটেড (IHCL)-এর ফুড ডেলিভারি প্ল্যাটফর্ম, কিউমিন (QMIN) শুক্রবার কলকাতায় সাড়ম্বরে আত্মপ্রকাশ করল।

সংস্থা জানায়, কলকাতায় বহুপ্রতীক্ষিত কিউমিন লঞ্চের প্রথম পর্বে তাজ (Taj Bengal) ও ভিভান্তা’র মতো সুবিখ্যাত নামীদামি রেস্তোঁরাগুলি থেকে খাবার পৌঁছে দেওয়া হবে ক্রেতার বাড়িতে। অতিথিরা চারটি সুপ্রসিদ্ধ ঐতিহ্যশালী রেস্তোঁরা যেমন তাজ বেঙ্গল, কলকাতার চিনোইসেরি (Chinoiserie), সোনারগাঁও (Sonargaon), ক্যাল ২৭ (Cal-27) এবং ভিভান্তা, বাইপাসের মিন্ট (Mynt ) থেকে খাবার অর্ডার করতে পারবেন।

সূচনালগ্নে তাজ বেঙ্গলের এরিয়া ডিরেক্টর (ইস্ট) ও জেনারেল ম্যানেজার মনীশ গুপ্তা বলেন, “এমনিতেই কলকাতার রান্না সারা দেশে গর্বের সঙ্গে পরিচিত। আমরা কলকাতায় কিউমিন শুরু করতে পেরে আনন্দিত, কিউমিন (QMIN) হল একটি গুরমেট ফুড ডেলিভারি পরিষেবা, যা গ্রাহকের অনলাইনে রন্ধনসম্পর্কিত পরিষেবার চাহিদা পূরণ করবে। কলকাতায় আইএইচসিএল-এর ল্যান্ডমার্ক হোটেলগুলি তিন দশকেরও বেশি সময় ধরে বিভিন্ন সুস্বাদু রান্না করা পদ এবং রন্ধনসম্পর্কিত উদ্ভাবনের জন্য সুবিদিত এবং আমাদের সেই সুনামধন্য রেস্তোঁরার অভিজ্ঞতা এখন অথিতির বাড়ির আরামদায়ক পরিবেশে পৌঁছে দেওয়াই বিশেষ লক্ষ্য”।

একই সঙ্গে তিনি জানান, কিউমিন মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনটি শীঘ্রই কলকাতায় চালু হবে এবং আগামীতে গুরমেট কিউমিন শপ (QMIN Shop) শুরু করা হবে।

আরও পড়তে পারেন: মা-ঠাকুমার হেঁশেল থেকে রইল ৩টি দারুণ রেসিপি, বাড়িতে ট্রাই করতে পারেন

এখন সংস্থার টোল-ফ্রি নম্বরে ফোন করে নিজের পছন্দের খাবার সহজেই অর্ডার করতে পারবেন ভোজনরসিক ক্রেতা।

Continue Reading
Advertisement

রবিবারের খবর অনলাইন

কেনাকাটা

things things
কেনাকাটা3 days ago

করোনা আতঙ্ক? ঘরে বাইরে এই ১০টি জিনিস আপনাকে সুবিধে দেবেই দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনা পরিস্থিতিতে ঘরে এবং বাইরে নানাবিধ সাবধানতা অবলম্বন করতেই হচ্ছে। আগামী বেশ কয়েক মাস এই নিয়মই অব্যাহত...

কেনাকাটা6 days ago

মশার জ্বালায় জেরবার? এই ১৪টি যন্ত্র রুখে দিতে পারে মশাকে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: একে করোনা তায় আবার ডেঙ্গুর প্রকোপ শুরু হয়েছে। এই সময় প্রতি বারই মশার উৎপাত খুবই বাড়ে। এই বারেও...

rakhi rakhi
কেনাকাটা2 weeks ago

লকডাউন! রাখির দারুণ এই উপহারগুলি কিন্তু বাড়ি বসেই কিনতে পারেন

সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে মনের মতো উপহার কেনা একটা বড়ো ঝক্কি। কিন্তু সেই সমস্যা সমাধান করতে পারে অ্যামাজন। অ্যামাজনের...

কেনাকাটা2 weeks ago

অনলাইনে পড়াশুনা চলছে? ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ৪০ হাজার টাকার নীচে ৬টি ল্যাপটপ

ইনটেল প্রসেসর সহ কোন ল্যাপটপ আপনার অনলাইন পড়াশুনার কাজে লাগবে জেনে নিন।

কেনাকাটা2 weeks ago

করোনা-কালে ঘরে রাখতে পারেন ডিজিটাল অক্সিমিটার, এই ১০টির মধ্যে থেকে একটি বেছে নিতে পারেন

শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা বুঝতে সাহায্য করে এই অক্সিমিটার।

কেনাকাটা3 weeks ago

লকডাউনে সামনেই রাখি, কোথা থেকে কিনবেন? অ্যামাজন দিচ্ছে দারুণ গিফট কম্বো অফার

খবরঅনলাইন ডেস্ক : সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে দোকানে গিয়ে রাখি, উপহার কেনা খুবই সমস্যার কথা। কিন্তু তা হলে উপায়...

laptop laptop
কেনাকাটা3 weeks ago

ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ২৫ হাজার টাকার মধ্যে এই ৫টি ল্যাপটপ

খবরঅনলাইন ডেস্ক : কোভিভ ১৯ অতিমারির প্রকোপে বিশ্ব জুড়ে চলছে লকডাউন ও ওয়ার্ক ফ্রম হোম। অনেকেই অফিস থেকে ল্যাপটপ পেয়েছেন।...

কেনাকাটা3 weeks ago

হ্যান্ডওয়াশ কিনবেন? নামী ব্র্যান্ডগুলিতে ৩৮% ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস বা কোভিড ১৯ এর সঙ্গে লড়াই এখনও জারি আছে। তাই অবশ্যই চাই মাস্ক, স্যানিটাইজার ও হ্যান্ডওয়াশ।...

কেনাকাটা4 weeks ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

খবরঅনলাইন ডেস্ক : একে লকডাউন তার ওপর ঘরে থাকার একঘেয়েমি। মনটাকে বিষাদে ভরিয়ে দিচ্ছে। ঘরের রদবদল করুন। জিনিসপত্র এ-দিক থেকে...

কেনাকাটা4 weeks ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

নজরে

Click To Expand