blast at nagerbazar
নাগেরবাজারে বিস্ফোরণ। নিজস্ব চিত্র।

কলকাতা: গান্ধী জয়ন্তীর সকালে বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল নাগেরবাজার এলাকা। ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে এক শিশুর। আহত হয়েছে আরও অন্তত ন’জন, যাঁদের মধ্যে তিন জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। মঙ্গলবার সকালে এখানকার কাজিপাড়ায় একটি বহুতলের নীচে একটি দোকানে এই বিস্ফোরণটি ঘটে। তবে এই বিস্ফোরণে নতুন মাত্রা যোগ করেছে দক্ষিণ দমদম পুরসভার পুরপ্রধানের চাঞ্চল্যকর দাবি।

আহত দশ জনের মধ্যে ওই বিভাস ঘোষ নামক ওই শিশু-সহ চার জনের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাদের আরজি কর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই মৃত্যু হয় বিভাসের। বাকিদের চিকিৎসা চলছে স্থানীয় একটি বেসরকারি হাসপাতালে। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, বিস্ফোরণের শব্দ এক কিলোমিটার দূর পর্যন্ত শোনা গিয়েছে। বিস্ফোরণের তীব্রতায় আশেপাশের কয়েকটি বাড়িতে জানলার কাচও ভেঙে গিয়েছে বলে খবর।

bivaস ghosh
বিভাস ঘোষ। নিজস্ব চিত্র।

বিস্ফোরণের কারণ এখনও স্পষ্ট না হলেও ঘটনায় নতুন মাত্রা যোগ করেছে দক্ষিণ দমদম পুরসভার পুরপ্রধান পাঁচু রায়ের চাঞ্চল্যকর দাবি। এই বাড়িতে তৃণমূলের কার্যালয় রয়েছে। এখানে রয়েছে পাঁচু রায়ের অফিসও। তাঁর দাবি, এই বিস্ফোরণের লক্ষ্য ছিলেন তিনি এবং অন্যান্য তৃণমূল কর্মী।

আরও পড়ুন বেসরকারি বিএড কলেজগুলির জন্য কমিটি গড়ল উচ্চশিক্ষা দফতর

পাচুবাবুর দাবি, যেখানে বিস্ফোরণ হয়েছে সেখান থেকে একটি ব্যাগ উদ্ধার করা হয়েছে এবং তার ভেতর থেকে বারুদের গন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। ঘটনার পেছনে রাজনৈতিক কারণই দেখতে পাচ্ছেন পাচুবাবু। তবে কে বা কারা এই কাণ্ড ঘটিয়ে থাকতে পারেন, সে ব্যাপারে কিছু জানাননি তিনি।

সকেট বোমা ফেটে এই বিস্ফোরণ হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে মনে করছে পুলিশ। ঘটনাস্থলে সিআইডি-র বম্ব স্কোয়াড পৌঁছে গিয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন