Connect with us

কলকাতা

লণ্ডভণ্ড করলেও বুলবুলের জন্যই পরিষ্কার হল কলকাতার বাতাস

rain in Kolkata

কলকাতা: দক্ষিণবঙ্গের তিন জেলাকে লণ্ডভণ্ড করে দিয়েছে বুলবুল। তার আঁচ ভালো মতোই টের পেয়েছে কলকাতা। অসংখ্য গাছ পড়েছে, একজনের মৃত্যুও হয়েছে। তবুও এই বুলবুলের সৌজন্যেই পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে কলকাতার বাতাস।

কালীপুজোর রাতে কলকাতার বাতাসে অতি সূক্ষ্ম ধূলিকণা পৌঁছে গিয়েছিল প্রতি ঘন মিটারে এক হাজারের বেশি মাইক্রোগ্রামে। গত বুধবার ৬ নভেম্বর বাতাসে বিষের নিরিখে দিল্লিকে ছাপিয়ে গিয়েছিল কলকাতা।

শহরের বিভিন্ন জায়গায় একিউআই বা বাতাসের গুণমান সূচক সে দিন ৪০০ ছাড়িয়েছিল। কিন্তু গত দু’ দিনের বৃষ্টি আর দমকা বাতাসের জেরে এক ধাক্কায় শহরের বাতাসের মান অনেকটাই উন্নত হয়েছে।

রবিবার যেখানে দেশে গড় একিউআই ৩২৫, সেখানে এ দিন কলকাতায় তার মান ছিল ২১। ২০১৯-এ এখনও পর্যন্ত রবিবারই সব থেকে পরিষ্কার বাতাস পেল কলকাতা।

বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, গত দু’তিন-দিনের বৃষ্টি ও ঝোড়ো বাতাসের কারণেই আপাতত কলকাতার বাতাসের এই উন্নতি লক্ষ করা যাচ্ছে। তবে আবার দূষণের মাত্রা বাড়তে থাকলে বাতাসে ধূলিকণা ও অন্যান্য দূষণ সৃষ্টিকারী পদার্থের মাত্রাও যে বাড়বে সেটাও বলতে ভুলছেন না তাঁরা।

আরও পড়ুন টিএন সেশনের মৃত্যুতে শোকবার্তা মোদী-মমতার

সাধারণত শীতে দূষণের মাত্রা বাড়ে। কারণ, এই সময়ে বাতাস ভারী হয়ে যায় এবং তার গতিবেগও কম থাকে। ফলে ধূলিকণা অন্যত্র সরতে পারে না। বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, দূষণের নিরিখে কলকাতার বাতাসের মান সাময়িক ভাবে খারাপ হয়েছিল, তবে কলকাতার বাতাসের মান এখনও পর্যন্ত যথেষ্ট ভালো।

কিন্তু এই স্বস্তি কত দিন স্থায়ী হবে, তা নির্ভর করছে দূষণের উৎসগুলিকে কতটা নিয়ন্ত্রণে রাখা যাবে, তার ওপর। বিজ্ঞানীদের মতে, কলকাতার ক্ষেত্রে দূষণের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ দু’টি দিক, পরিবহণ এবং নির্মাণক্ষেত্র। শহরের বায়ু দূষণের ৫০ শতাংশেরও বেশি হয় এই দু’টি সূত্র থেকেই।

যানজট নিয়ন্ত্রণ, শহরের রাস্তা ধোওয়া, নির্মাণকাজের ক্ষেত্রে জল ছেটানোর মতো ব্যবস্থাগুলি নিলে বায়ুদূষণের পরিমাণ বেশ খানিকটা নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

কলকাতা

সক্রিয় রোগীর নিরিখে এই মুহূর্তে কলকাতার অবস্থান কত নম্বরে?

কলকাতা পঞ্চদশ স্থানে।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: গত কয়েক দিন ধরে পশ্চিমবঙ্গের উদ্বেগজনক ভাবে বাড়ছে করোনা-আক্রান্তের সংখ্যা। এর পেছনে কলকাতার অবদান সব থেকে বেশি। এই শহরে দৈনিক তিনশো জন করে করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। আবার একই সঙ্গে সুস্থও হচ্ছে দু’শোর বেশি। এর ফলে সক্রিয় রোগীর সংখ্যাটা এখনও সে ভাবে বাড়েনি।

সক্রিয় রোগীর নিরিখে দেখা যাবে এই মুহূর্তে ভারতে ১৫তম জায়গায় রয়েছে কলকাতা। অর্থাৎ, কলকাতাবাসীরা কিছুটা হলেও স্বস্তির নিঃশ্বাস নিতেই পারেন। তবে কোনো ভাবেই সতর্কতায় ঢিলে দিলে চলবে না।

দেখে নিন, সক্রিয় রোগীর নিরিখে ভারতে কার অবস্থান কত নম্বরে

১) ঠানে (মহারাষ্ট্র) – ৩০,০০৭

২) মুম্বই (মহারাষ্ট্র) – ২৩,৭৯৯

৩) হায়দরাবাদ (তেলঙ্গানা) – ২৩,৭৮৬

৪) দিল্লি – ২১,১৮৬

৫) চেন্নাই (তামিলনাড়ু) – ১৮,৬১৬

৬) পুনে (মহারাষ্ট্র) – ১৭,২২৬

৭) বেঙ্গালুরু (কর্নাটক) – ১১,৬৮৭

8) পালঘর (মহারাষ্ট্র) – ৪,২৬২

৯) মাদুরাই (তামিলনাড়ু) – ৪,১৩১

১০) ঔরঙ্গাবাদ (মহারাষ্ট্র) – ৩,৬৯১

১১) রায়গড় (মহারাষ্ট্র) – ৩,৬৪৮

১২) অমদাবাদ (গুজরাত) – ৩,৫৭১

১৩) কামরূপ মেট্রো/ গুয়াহাটি (অসম) – ৩,৪৮০

১৪) চেঙ্গলপট্টু (তামিলনাড়ু) – ৩,১২৭

১৫) কলকাতা (পশ্চিমবঙ্গ) – ৩,০৬৭

Continue Reading

কলকাতা

করোনার পাশাপাশি কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে শুরু হচ্ছে অন্যান্য রোগের চিকিৎসা

তবে দীর্ঘ টানাপোড়েনের পর ফের অন্যান্য রোগীর চিকিৎসাও এ বার শুরু হচ্ছে।

কলকাতা: করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসায় ‘কোভিড হাসপাতাল’ (Covid Hospital) হিসাবে ঘোষণা করা হয়েছিল কলকাতা মেডিক্যাল কলেজকে (Kolkata Medical Collage)। তবে দীর্ঘ টানাপোড়েনের পর ফের অন্যান্য রোগীর চিকিৎসাও এ বার শুরু হচ্ছে।

শুধুমাত্র করোনার (Coronavirus) চিকিৎসা হওয়ায় তাঁদের প্রশিক্ষণ অসম্পূর্ণ থেকে যেতে পারে বলে অভিযোগ তুলে আন্দোলনে নেমেছিলেন হাসপাতালের ইন্টার্ন এবং পিজিটিরা। নন-কোভিড রোগীদের পরিষেবা শুরুর দাবিতে আন্দোলনকে সমর্থন জানিয়ে শিক্ষক-চিকিৎসকদের একাংশ প্রশ্ন তুলেছিলেন, পঠনপাঠনকে ক্ষতিগ্রস্ত করে কেন পুরো হাসপাতালে শুধুমাত্র কোভিডের চিকিৎসা হবে?

গত বুধবার হাসপাতালের অধ্যাপক এবং সিনিয়র ডাক্তারদের সঙ্গে বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, “বিশেষজ্ঞ কমিটি যে রিপোর্ট দিয়েছে, তা মেনে চলবেন কি না দেখুন। সিনিয়রেরা জুনিয়রদের দিয়ে কাজ করালেই সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে”। একই সঙ্গে তিনি জুনিয়র চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলে সমস্যা মিটিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দেন।

অন্য দিকে মেডিক্যাল কলেজে রয়েছে একাধিক সুপার স্পেশালিটি বিভাগ। ‘কোভিড হাসপাতালে’র তকমা মিলে যাওয়ার পর অন্য রোগীরা দূর থেকে এসে ভোগান্তির শিকার হচ্ছিলেন। সব মিলিয়ে পরিস্থিতি বিবেচনা করে দ্রুত সমস্যা সমাধানের সিদ্ধান্ত নিলেন কর্তৃপক্ষ।

জানা গিয়েছে, শীঘ্রই আউটডোর বিভাগ চালু হয়ে যাবে। পাশাপাশি অন্যান্য সমস্ত বিভাগেও রোগী ভরতি করা হবে।

এ দিন অধ্যক্ষের জারি নোটিফিকেশনে আন্দোলনকারী জুনিয়র চিকিৎসকদের দাবিকে মান্যতা দিয়েই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে জানা গিয়েছে। স্বাভাবিক ভাবেই এই ঘোষণাকে নিজেদের জয় বলে দাবি করেছেন আন্দোলনকারীরা।

Continue Reading

কলকাতা

শুক্রবার থেকে বন্ধ কলকাতা হাইকোর্ট

হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি বিজ্ঞপ্তি জারি করে আগামী সোমবার পর্যন্ত আদালত বন্ধ থাকার কথা ঘোষণা করেন।

Kolkata High Court

কলকাতা: আগামী শুক্রবার থেকে বন্ধ থাকবে কলকাতা হাইকোর্ট (Kolkata High court)। বৃহস্পতিবার কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি বিজ্ঞপ্তি জারি করে আগামী সোমবার পর্যন্ত উচ্চআদালত বন্ধ থাকার কথা ঘোষণা করেন।

এ দিন বিকেল ৫টা থেকে কলকাতা-সহ রাজ্যের অন্যান্য করোনাভাইরাস (Coronavirus) কনটেনমেন্ট জোনগুলিকে লকডাউনের কড়াকড়ি নিয়ম চালু হচ্ছে। এর প্রেক্ষিতে আগামী শুক্রবার থেকে কলকাতা হাইকোর্টে জীবাণুমুক্ত করার কাজ শুরু হবে। হাইকোর্টের তিনটি বিল্ডিংকেই জীবাণুমুক্ত করা হবে। ফলে আগামী চার দিন সমস্ত রকমের কাজ বন্ধ থাকবে।

দেশব্যাপী লকডাউন শুরু হওয়ার পর বন্ধ হয়ে কলকাতা হাইকোর্ট। অনলাইনে নির্দিষ্ট কয়েকটি মামলার ভার্চুয়াল শুনানি চালু ছিল। তবে সশরীরে শুনানি ফের শুরু হয় গত ১১ জুন থেকে। কিন্তু আইনজীবীদের ভিড়ের ঠেলায় শারীরিক দূরত্ব (Social distancing) শিকেয় ওঠে বলে অভিযোগ শোনা যায়।

এ দিন হাইকোর্টের রেজিস্টার জেনারেল একটি বিজ্ঞপ্তিতে জানান, “মহানগরের উল্লেখযোগ্য অংশটিকে কনটেনমেন্ট জোন হিসাবে ঘোষণা করে নতুন লকডাউন ঘোষণার কারণে হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি ১০-১৩ জুলাই কলকাতা হাইকোর্টের বিচার বিভাগীয় ও প্রশাসনিক কাজ স্থগিত করেছেন”।

Continue Reading
Advertisement
রাজ্য38 mins ago

অস্বস্তি থেকে স্বস্তি দিয়ে জোর বৃষ্টি কলকাতায়, চলবে আগামী কয়েক দিন

দেশ2 hours ago

‘১৫ কোটির টোপ’, বিতর্ক উসকে দিলেন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গহলৌত

দেশ2 hours ago

প্যাংগংয়ের ফিঙ্গার এলাকা থেকে সরছে চিন সেনা, উপগ্রহ চিত্রে মিলল প্রমাণ

দুর্গা পার্বণ4 hours ago

আজও ভিয়েন বসিয়ে হরেক রকম মিষ্টি তৈরি হয় চুঁচড়ার আঢ্যবাড়ির দুর্গাপুজোয়

Shaktikanta Das
দেশ7 hours ago

কোভিড-১৯ স্বাস্থ্য এবং অর্থনীতির সামনে শেষ একশো বছরের সব থেকে বড়ো সংকট: আরবিআই গভর্নর

দেশ7 hours ago

করোনার চিকিৎসায় আরও এক ওষুধ ব্যবহারের অনুমতি মিলল

কলকাতা8 hours ago

সক্রিয় রোগীর নিরিখে এই মুহূর্তে কলকাতার অবস্থান কত নম্বরে?

দেশ9 hours ago

দৈনিক আক্রান্তে রেকর্ডের দিনই সুস্থতা ছাড়াল ৫ লক্ষ

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 days ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

খবরঅনলাইন ডেস্ক : একে লকডাউন তার ওপর ঘরে থাকার একঘেয়েমি। মনটাকে বিষাদে ভরিয়ে দিচ্ছে। ঘরের রদবদল করুন। জিনিসপত্র এ-দিক থেকে...

কেনাকাটা4 days ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

কেনাকাটা5 days ago

রান্নাঘরের টুকিটাকি প্রয়োজনে এই ১০টি সামগ্রী খুবই কাজের

খবরঅনলাইন ডেস্ক : লকডাউনের মধ্যে আনলক হলেও খুব দরকার ছাড়া বাইরে না বেরোনোই ভালো। আর বাইরে বেরোলেও নিউ নর্মালের সব...

কেনাকাটা6 days ago

হ্যান্ড স্যানিটাইজারে ৩১ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

অনলাইনে খুচরো বিক্রেতা অ্যামাজন ক্রেতার চাহিদার কথা মাথায় রেখে ঢেলে সাজিয়েছে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের সম্ভার।

নজরে