হাইকোর্টে জমা পড়ল কাশীপুরের বিজেপি কর্মীর ময়নাতদন্ত রিপোর্ট, খুন না কি আত্মহত্যা?

0

কলকাতা: হাইকোর্টে জমা পড়ল কাশীপুরের বিজেপি কর্মী অর্জুন চৌরাসিয়ার ময়নাতদন্ত রিপোর্ট। মুখবন্ধ খামে ওই ময়নাতদন্তের রিপোর্ট জমা দিয়েছে আলিপুরের কমান্ড হাসপাতাল। সূত্রের খবর, ওই রিপোর্টে বলা হয়েছে, গলায় ফাঁস লেগে ঝুলেই মৃত্যু হয়েছে অর্জুনের।

গত শুক্রবার সকালে কাশীপুরে বিজেপি যুব মোর্চার কর্মী অর্জুনের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধারের ঘটনায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। কাশীপুর রেল কোয়ার্টারের পরিত্যক্ত একটি ঘর থেকে ওই ২৬ বছরের ওই যুবকের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। পুলিশ সূত্রে দাবি, ঘরে কোনো সুইসাইড নোট মেলেনি। তবে বিজেপি এবং মৃতের পরিবার দাবি করে, আত্মহত্যা নয়, মেরে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছিল অর্জুনকে।

প্রায় সাড়ে ৫ ঘণ্টা ধরে টানাপোড়েনের পর দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য আরজি কর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায় পুলিশ। তারই মধ্যে ময়নাতদন্ত বন্ধ রাখার আরজি জানিয়ে হাইকোর্টে দায়ের হয় জনস্বার্থ মামলা। কল্যাণী এইমসের চিকিৎসকদের দিয়ে ময়নাতদন্ত করানোর দাবি করেন মামলাকারী। শুনানিতে হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির বেঞ্চ জানিয়ে দেয়, অর্জুনের ময়নাতদন্ত হবে আলিপুরের কমান্ড হাসপাতালে।

কমান্ড হাসপাতালের সেই রিপোর্টই মঙ্গলবার জমা পড়ে আদালতে। যদিও ময়নাতদন্তের রিপোর্টে স্পষ্ট নয়, খুন না আত্মহত্যা করেছেন অর্জুন। শুধু জানা গিয়েছে, গলায় ফাঁস লেগেই মৃত্যু হয় বিজেপির যুব মোর্চা নেতার। পাশাপাশি বলা হয়েছে, এই মৃত্যু ‘অ্যান্টিমর্টেম ইন নেচার’ অর্থাৎ ঝোলানোর আগেই মৃত্যু হয়েছিল, এমন কোনো প্রমাণ মেলেনি।

মৃত্যুর আগে কোনো রকম ধস্তাধস্তির ইঙ্গিতও মেলেনি রিপোর্টে। অর্থাৎ, খুনের ইঙ্গিত নেই বলেই ধারণা করা যেতে পারে। অন্য দিকে, রাজ্য সরকারের তরফে এ দিন আদালতে জানানো হয়, এই ঘটনায় অস্বাভাবিক মৃত্যুর তদন্ত করছে পুলিশ। যদিও রহস্যমৃত্যুর ঘটনায় এখনও সিবিআই তদন্তে অনড় অর্জুনের পরিবার। এই মামলার পরবর্তী শুনানি আগামী ১৯ মে।

আরও পড়তে পারেন:

ভাঙল ‘শিব-হরি’ জুটি! প্রয়াত কিংবদন্তি সন্তুর বাদক শিবকুমার শর্মা

বিটকয়েন-সহ অন্যান্য ক্রিপ্টোকারেন্সিতে এ বার জিএসটি, ভাবনা কাউন্সিলের

পঞ্জাবে গ্রেনেড হামলা, তীব্র চাঞ্চল্য

ভালোভাবে সংগঠিত হতে ব্যর্থ, তাই এতো আগে থেকে বৃষ্টি দিচ্ছে ‘অশনি’

শ্রীলঙ্কায় তুলকালাম: বিদায়ী প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনের ভেতর থেকে গুলি বিক্ষোভকারীদের উদ্দেশে

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন