রেজিস্ট্রি করেই দায় সারলে হবে না, কর মূল্যায়নে দায়িত্ব নিতে হবে প্রোমোটারকে

0
ফিরহাদ হাকিম। প্রতীকী ছবি

কলকাতা: ফ্ল্যাটের রেজিস্ট্রি হয়ে যাওয়ার পরও তার কর মূল্যায়ন হচ্ছে না। এমন সমস্যার কথা শোনা যায় প্রায়শই। এ বার শুধুমাত্র রেজিস্ট্রি করে দায় এড়াতে পারবেন না প্রোমোটার। কলকাতা পুরসভা জানিয়ে দিল, এ কাজের দায়িত্ব বর্তাবে প্রোমোটারের উপর।

দুয়ারে সরকার-এর ধাঁচে এ বার ‘দুয়ারে মিউটেশন’ শুরু করছে কলকাতা পুরসভা। যে সব ওয়ার্ডে নতুন আবাসন তৈরি হচ্ছে, সেই সব এলাকায় ক্যাম্প করা হবে। যে ভাবে দুয়ারে সরকার কর্মসূচিতে মানুষ শিবিরে গিয়ে পরিষেবা পান, এ ক্ষেত্রেও নিজের ওয়ার্ডেই মিউটেশনের সুবিধা পাবেন কলকাতাবাসী।

জমি কেনা সত্ত্বেও মিউটেশন এবং ফ্ল্যাট কেনার পর অ্যাসেসমেন্ট না হওয়ার কারণে জটিলতায় জড়িয়ে রয়েছেন অনেকেই। শনিবার সাংবাদিক বৈঠকে কলকাতা পুরসভার মেয়র ফিরহাদ হাকিম, “এখন থেকে সারা বছর আমরা ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে ক্যাম্প করে মিউটেশন ও আবেদনপত্র নেওয়ার কাজ করব। নথিপত্র ওই ক্যাম্পেই নেওয়া হবে। আবেদনের ফর্মও ওই ভাবেই দেওয়া হবে। হাতে হাতেই অ্যাসেসমেন্ট করা হবে। অনেক ক্ষেত্রে অ্যাসেসমেন্ট হয়েও তা আপডেটেড হয়নি। সেইসব কাজ করা হবে এই ক্যাম্পগুলিতে”।

পুরসভার কাছে মাঝেমধ্যেই অভিযোগ আসে, ফ্ল্যাটের রেজিস্ট্রেশন হয়ে গেলেও কর মূল্যায়ন হচ্ছে না। তবে শুধুমাত্র রেজিস্ট্রি করিয়ে, আর দায় এড়াতে পারবেন না প্রোমোটার। ফ্ল্য়াটের মালিকের নাম পুরসভাকে জানাবেন প্রোমোটারই। না হলে করের টাকা গুনতে হবে তাঁকেই।

মেয়র জানান, ৩০ দিনের মধ্যে করা হবে মিউটেশন। এমনকী, যে ক্ষেত্রে কোনো জটিলতা নেই, তা এক দিনেই হয়ে যাবে। জটিলতা যদি থাকে, তা হলে সবচেয়ে বেশি ৩০ দিনের মধ্যেই মিউটেশন হয়ে যাবে।

আরও পড়তে পারেন: 

কাশীপুরের পর খেজুরি, ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার ঘিরে রাজনৈতিক চাপানউতোর

ছত্তীসগঢ় সরকারের প্রস্তাবে সাড়া দিয়ে আলোচনায় প্রস্তুত মাওবাদীরা, রইল একাধিক শর্ত

হাজারের উপর চড়ল রান্নার গ্যাস, জন-যন্ত্রণা নিয়ে মমতার নিশানায় কেন্দ্র

জামশেদপুরে টাটা ইস্পাত কারখানায় আচমকা বিস্ফোরণ! আহত অন্তত ৩, দেখুন ভিডিয়োয়

সৌরভ রাজনীতিতে এলে মানুষের জন্য ভালো কাজই করবেন, জল্পনা উস্কে মন্তব্য ডোনা গঙ্গোপাধ্যায়ের

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন