dhapa dumping ground
ছবি: দ্য টেলিগ্রাফ থেকে

কলকাতা: রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়ন দফতর পূর্ব কলকাতার ধাপার মাঠকে নতুন করে সাজিয়ে তুলে পর্যটকদের গন্তব্যে পরিণত করার কাজে হাত লাগিয়েছে। এই উদ্যোগে সহায়তা করছে পরিবেশ দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ।

সারা শহরের আবর্জনা ফেলার জন্য এতদিন ব্যবহার করা হতো ইএম বাইপাস লাগোয়া ধাপার মাঠকে। পার্শবর্তী এলাকায় সবজি চাষের জন্যই ব্যবহৃত হয়। তবে জঞ্জালের স্তূপের দুর্গন্ধ সবুজে ঢেকে দিয়ে সংলগ্ন এলাকাকে পর্যটকদের কাছে আকর্ষণীয় করে তোলার কাজ ইতিমধ্যেই শুরু করে দিয়েছে দফতর।

পর্যটকদের যাতায়াত ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজাতেও একগুচ্ছ কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। তৈরি হচ্ছে ফুটপাথযুক্ত রাস্তা। একই সঙ্গে খাল পার হওয়ার জন্য দু’টি স্বল্প দৈর্ঘ্যের সেতু তেরিও হচ্ছে। এ ব্যাপারে কেএমডিএ-র তরফে দরপত্র আহ্বান করা হয়েছে। ৩ কোটি ৪৩ লক্ষ টাকার এই প্রকল্পের কাজ শেষ করার জন্য নির্ধারিত হয়েছে ছ’মাস সময়।

কেএমডিএ সূত্রে জানা গিয়েছে, আগামী ২০২০ সালের দুর্গাপুজোর আগেই ওই পর্যটনস্থলটি সাধারণের জন্য খুলে দেওয়ার লক্ষ্য নিয়ে এগনো হচ্ছে।

[ আরও পড়ুন: ট্রেনের ধাক্কায় ফের হাতির মৃত্যু উত্তরবঙ্গে ]

অন্য দিকে, পুর ও নগরোন্নয়ন দফতর সূত্রে খবর, আলিপুর জেল এবং পার্শ্ববর্তী প্রেসিডেন্সি জেলের স্থানান্তর প্রক্রিয়া শেষ হলে ওই জায়গাতেও গড়ে তোলা হবে একটি গ্রিন সিটি। এই দুই জেলের মিলিত জমির পরিমাণ প্রায় ১০০ একরের বেশি। সেখানকার ১০০ একর জায়গার ওপর তৈরি করা হবে গ্রিন সিটি। হেরিটেজ অংশগুলিকে সংরক্ষণের মাধ্যমেই নতুন ওই প্রকল্প গড়ে তোলা হবে।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন